| |

সর্বশেষঃ

বিএনপির নির্বাচনে আসা ছাড়া তাদের কোন বিকল্প নেই : বাণিজ্যমন্ত্রী

আপডেটঃ ৬:১০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১০, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বিএনপি যত কথাই বলুক আর যত শর্তই দিক নির্বাচনে আসা ছাড়া তাদের কোন বিকল্প নেই। মন্ত্রী বলেন, তাদের সঙ্গে আমাদের আলোচনা হয়েছে। সংলাপে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থেকে আমিও যুক্তি-তর্ক দিয়ে ওদের বক্তব্য খণ্ডন করার চেষ্টা করেছি। তারা চায়, একটা উপদেষ্ঠা মণ্ডলীর সরকার, যেটা সংবিধানে নাই। তারা চায়, সংসদ বিলুপ্ত হোক, যেটা সংবিধানে নাই।

গতকাল শনিবার দুপুরে ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে তখনই দেশ ও দেশের মানুষের উন্নয়ন হয়।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোলা-১ (সদর উপজেলা) আসনের প্রতিটি নির্বাচনী কেন্দ্রভিত্তিক কমিটি করা হয়েছে। এসব কেন্দ্র কমিটির মোট ১৫ হাজার কর্মী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করবে। এই কর্মীদের নিয়ে ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে কর্মী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। সমাবেশে অন্তত ২০ হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থক অংশ নিয়েছে। সমাবেশের শুরুতে ভোলা উন্নয়ন এবং জননেতা তোফায়েল আহমেদের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের উপর একটি প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

সমাবেশে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ আওয়ামী লীগের সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন, ভোলার উন্নয়নে কয়েক হাজার কোটি টাকার কাজ হয়েছে। আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এই উন্নয়নের ধারাকে অব্যহত রাখা হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ প্রাকৃতিক গ্যাস সমৃদ্ধ ভোলাকে একটি শিল্প নগরী হিসেবে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন উল্লেখ করে বলেন, ভোলা হবে সিঙ্গাপুরের মত একটি শহর।

তিনি আরও বলেন, আজকের প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আসার পর তাকে ১৯ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার হত্যা বিচার করেছেন, জাতীয় ৪ নেতার হত্যার বিচার করেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছেন, সবশেষ তিনি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার করেছেন। এসব বিচারের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশকে তিনি কলঙ্কমুক্ত করেছেন।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসায় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ আজ বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল। আমরা এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। এই উন্নয়ন যেমন হয়েছে শহরে, তেমনি হয়েছে গ্রামে। ভোলাসহ দেশের প্রতিটি গ্রাম এখন শহরে পরিণত হয়েছে। গ্রামে গ্রামে বিদ্যুৎ পৌছে দেওয়া হয়েছে। গ্রামীণ ভৌত অবকাঠামো ব্যাপক উন্নয়নের কারণে গ্রামের মানুষ আগের চেয়ে অনেক সুখ স্বাচ্ছন্দে জীবন যাপন করছেন। যা সম্ভব হয়েছে আমাদের আজকের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক চেষ্টায়।

মন্ত্রী বলেন, ভোলার মানুষের দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন ভোলা-বরিশাল ব্রিজ। এই ব্রিজ নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে ভোলা-বরিশাল ব্রিজের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ হয়েছে। আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এই ব্রিজ নির্মাণ করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ভোলাতে রয়েছে প্রকৃতিক গ্যাস সম্পদ। এই সম্পদ কাজে লাগিয়ে ভোলায় ইকোনোমিক জোন গড়ে তোলা হবে। ভোলা হবে উন্নয়নের দিক থেকে দেশের মধ্যে শ্রেষ্ঠ জেলা। এক সময় ভোলা হবে সিঙ্গাপুরের মত উন্নত একটি ভূখন্ড। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভোলা জেলা আওয়ামী লীগে কোন দলাদলি নেই। কোন গ্রুপিং নেই। আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রতিটি ঘরে ঘরে আওয়ামী লীগের দুর্গ গড়ে তোলারও আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারেফ হোসেনের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন টুলু, পৌরমেয়র মনিরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকিব, যুগ্ম সম্পাদক এনামুল হক আরজু, সাংগঠনিক সম্পাদক মাইনুল হোসেন বিপ্লব, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো: ইউনুছ প্রমূখ।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting