| |

সর্বশেষঃ

ছুটির দিনে জমে উঠেছে আয়কর মেলা

আপডেটঃ ৫:০৭ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৬, ২০১৮

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : সরকারি ছুটির দিন শুক্রবার জমে উঠেছে জাতীয় আয়কর মেলা।

আয়কর রিটার্ন জমা, নতুন ই-টিআইএন খোলা কিংবা করসেবা নেওয়াসহ সকল কাজই চলছে ক্লান্তিহীনভাবে। সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ছুটির দিনে অফিসের ব্যস্ততা না থাকায় আজ মেলায় এসে আয়কর সেবা নিচ্ছেন। মেলা প্রাঙ্গণে চলছে উৎসবের আমেজ।

শুক্রবার রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড আয়োজিত আয়কর মেলার চতুর্থ দিনে এমন চিত্র চোখে পড়ছে। দুপুরের পর আয়কর মেলায় করদাতাদের চাপ বেড়েছে।

ছুটির দিন হওয়ায় সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়াও অন্যান্য পেশাজীবীদেরও মেলায় আসতে দেখা গেছে। মেলা ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন কর অঞ্চলের রিটার্ন গ্রহণ বুথ, হেল্প ডেস্ক, ব্যাংকের বুথ, ই-পেমেন্ট বুথ, ই-টিআইএন বুথসহ সব বুথে করদাতাদের ভিড়।

মতিঝিল থেকে স্ত্রী ও নিজের কর বিবরণী জমা দিতে মেলায় এসেছেন সরকারি কর্মকর্তা হামিদ শেখ। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, প্রতিদিন অফিস শেষে মেলায় আসার সময় হয় না। ছুটির দিন হওয়ায় বিকেলে চলে আসলাম। অন্য বছরের তুলনায় এ বছর মেলায় সেবার মান খুবই ভালো। গত দুই বছর কর সার্কেল, কর বিবরণী, টাকা জমার ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা থাকলেও এবার তা হয়নি।

অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল আলম বলেন, সিনিয়র সিটিজেন হিসেবে কর বিবরণী জমা দিতে এসেছি। সেবার মান ভালো। আমাদের জন্য পৃথক বুধ রয়েছে। কোনো বাড়তি ভিড় নেই।

ধানমন্ডি থেকে মেলায় আসা স্কুলশিক্ষিকা ইয়াসমিন জানান, প্রতিবছর মেলায় আসেন তিনি। মেলায় পরিবারের পাঁচ সদস্যের কর বিবরণী ও কর জমা দেন তিনি। কর দিতে ভালো লাগে। শুধু কর দেওয়া নয়, অন্যান্য সেবা উপভোগ করতেও তিনি মেলায় আসেন।

মেলায় কর সংক্রান্ত সব সেবাই সহজে মিলছে। মাত্র কয়েক মিনিটেই জমা দেওয়া যাচ্ছে আয়কর রিটার্ন। ব্যাংক বুথ ছাড়াও ই-পেমেন্টের মাধ্যমে অনলাইনেই জমা দেওয়া যাচ্ছে আয়কর। করা যাচ্ছে ই-ফাইলিংও। কর নিবন্ধন (ই-টিআইএন) নিতেও সময় লাগছে খুবই কম। আর বিড়ম্বনা ছাড়া সহজে আয়কর জমা দিতে পেরে সন্তুষ্ট করদাতারা। তাদের চোখেমুখে খুশি আর গর্বের ছাপ।

‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’ স্লোগানে শুরু হওয়া এবারের মেলার প্রতিপাদ্য ‘আয়কর প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ন্যায়বিচার ও ধারাবাহিক উন্নয়ন নিশ্চিতকরণ’। মেলায় প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত সব ধরণের সেবা মিলছে।

মেলার সমন্বয়ক ও এনবিআর সদস্য জিয়া উদ্দিন মাহমুদ বলেন, ‘মেলায় করদাতাদের সেবা নেওয়া, নিবন্ধন নেওয়া ও রিটার্ন জমা দেওয়ার ধারা অব্যাহত রয়েছে। কোনো সমস্যা হলে সাথে সাথেই মিলছে সমাধান।’

ঢাকাসহ বিভাগীয় শহর, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে গত মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা। এবারে ১৭৪টি স্থানে আয়কর মেলা হচ্ছে। প্রতিদিন মেলা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে।

রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে গত ১৩ নভেম্বর মেলা উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting