| |

সর্বশেষঃ

অধিনায়ক সাকিবের নতুন যাত্রা, রাঙাতে চান শুরুটা

আপডেটঃ ৭:৩৬ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২১, ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে : চট্টগ্রাম আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুহাত ভরে দিয়েছে সাকিব আল হাসানকে। চট্টগ্রামে সাকিবের সাফল্যের ভান্ডার টইটুম্বুর। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সাকিবের সবচেয়ে প্রিয় প্রতিপক্ষের একটি।

দ্বিতীয় মেয়াদে অধিনায়ক হিসেবে দেশের মাটিতে সাকিবের প্রথম ম্যাচ বৃহস্পতিবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। প্রথম মেয়াদে সাকিবের শুরুটা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেশের বাইরে। মাশরাফি বিন মুর্তজার চোটে ২০০৯ সালে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান সাকিব। সাকিবের হাত ধরে বিদেশে টেস্ট সিরিজ জয় করে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো সিরিজসেরা হন সাকিব।

দেশের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে চট্টগ্রামের মাটিতে অধিনায়ক সাকিবের অভিষেক। টিম বাংলাদেশের বোলিং নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করেছিলেন বীরেন্দ্রর শেবাগ। পরের গল্পটা সবারই জানা। গম্ভীর, শেবাগ, টেন্ডুলকার, লক্ষ্ণণ আর কার্তিকদের ভারতকে প্রথম ইনিংসে অলআউট করে মাত্র ২৪৩ রানে। সাকিবের পকেটে ৫ উইকেট, শাহাদাতের পকেটে ৫টি।

চট্টগ্রামে ভারতের বিপক্ষে ওই ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে সাকিব পূর্ণ করেন ক্যারিয়ারের ৫০তম উইকেট। দ্বিতীয় বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে সাকিব উইকেটের তিন অঙ্কে পৌঁছান ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। আবার ১৫০ উইকেটের স্বাদ পান ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রামে। এবার তো দুইশর হাতছানি। ১৯৬ উইকেট নিয়ে সাকিব ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আতিথেয়তা দিতে যাচ্ছেন। বোলিংয়ের মতো ব্যাটিংয়েও চট্টগ্রামে সাকিবের সাফল্য রয়েছে। ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট ফিফটি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রামে।

দ্বিতীয় দফায় অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়ার পর ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রামে মাঠে নামার কথা ছিল সাকিবের। কিন্তু চোটের কারণে সে সুযোগ হয়নি। এবার দীর্ঘ বিরতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রামে মাঠে নামতে যাচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

দেশের মাটিতে নিজের অধিনায়কত্বের শুরুটা ভালো করতে মুখিয়ে সাকিব, ‘আমি তো আশাবাদী। আমি মনে করি পুরো দলও বিশ্বাস করে ওদের সাথে ভালো করা সম্ভব। ভালো করার যেই বিশ্বাসটা সেটা সবার ভেতরে আছে। আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমরা ভালো করতে পারব।’

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting