| |

সর্বশেষঃ

আ’লীগের মনোনয়নপত্র বৈধ আর বিএনপি হলেই অবৈধ : রিজভী

আপডেটঃ ১:১৭ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের ছকের মধ্য থেকেই কাজ করছেন কে এম নুরুল হুদা কমিশন। এখন পর্যন্ত ইসির প্রতিটি পদক্ষেপে ক্ষমতাসীন দল জোরালো সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বা সবার জন্য সমান সুযোগ তৈরি করা হচ্ছে না। শুধু তা-ই নয়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা প্রশাসনে রদ-বদলের দাবি করলেও মনে হয় আসাহাবে কাহাফের মতো ইসি দীর্ঘকাল ঘুমিয়ে থাকবে।

বুধবার সকালে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে, নির্বাচন কমিশন খোলস ভেঙে তাদের আওয়ামী চেহারাটা ততটাই উন্মোচিত হয়ে পড়ছে। নির্বাচনের আগেই সম্ভবত ক্ষমতাসীন দলের ‘বিজয়’ নিশ্চিত করতে নানা রকম কলা-কৌশল ফন্দি-ফিকির করছে কমিশন। এর একটি ড্রেস রিহার্সেল হয়ে গেল মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় বিপুল সংখ্যক প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের মধ্য দিয়ে। বিএনপির প্রার্থী, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র কেবল যাচাই-বাছাই হয়েছে এবং বাতিল করা হয়েছে গণহারে। আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়নি।

মনোনয়ন বাছাই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি এমন যে, বিএনপি হলেই অবৈধ আর আওয়ামী লীগের প্রার্থী হলেই বৈধ। আওয়ামী লীগের ব্লু-প্রিন্টের কুখ্যাত কারিগর এইচ টি ইমাম যে তালিকা সিইসিকে দিয়েছেন তাই বৈধ বলে প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন জেলার রিটার্নিং অফিসাররা।’

রিজভী বলেন, ‘মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে সরকারের মনোবাঞ্ছা বাস্তবায়ন করার পর এখন মাঠের নিয়ন্ত্রণ যাতে ক্ষমতাসীন দলের হাতেই থাকে, সেজন্য নির্বাচন কমিশন কখনো প্রকাশে আবার কখনো পর্দার অন্তরালে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে। ইসি নোটিশ দিচ্ছে নির্বাচনের আগে প্রার্থীদের পক্ষ থেকে পোলিং এজেন্টদের তালিকা তাদেরকে দিতে হবে। সেই তালিকা ধরে নতুন করে ধরপাকড় শুরু করার নীলনকশা এটা। গাজীপুর, রাজশাহী ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমরা এমন পরিস্থিতি দেখেছি। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন এমপির দাপট তো থাকবেই।’

তিনি বলেন, ‘সাড়ে পাঁচ হাজার টাকার জন্য ড. রেজা কিবরিয়ার মনোনয়ন বাতিল করা হলেও এক কোটি টাকার ঋণখেলাপি হয়েও বৈধতা পেল আওয়ামী লীগ জোটের বিকল্প ধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী। ব্যাংকের লোক গিয়ে আপত্তি জানালেও রিটার্নিং কর্মকর্তা তা আমলে নেননি। রিটানিং কর্মকর্তা তা গণমাধ্যমের কাছে স্বীকারও করেছেন।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামালের আয়কর রিটার্নের নানাবিধ অসঙ্গতি থাকার পরও তার মনোনয়নপত্র বৈধ করেছে রিটার্নিং অফিসার। রিটার্নে ব্যবসায়িক আয় অপ্রদর্শিত। এ কে এম শাহজাহান কামালের আর্থিক বিবরণী দাখিলকৃত হলফনামার সাথে কোনো মিল নেই। তারপরও তার মনোনয়নপত্র বৈধ করা হয়েছে।

দুর্নীতি মামলায় বিচারিক আদালতের দেয়া ১৩ বছরের সাজার তথ্য গোপন করেও মনোনয়নপত্রের বৈধতা পেয়েছেন বরিশাল-৪ আসনে মহাজোট প্রার্থী। বিষয়টি বরিশালের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগসহ অবহিত করার পরও তা গুরুত্ব পায়নি।

পত্র-পত্রিকায় এসেছে ম খা আলমগীর তার হলফনামায় স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের কোনো হিসাবই দেননি। অনেক ছক পূরণ করেননি। এছাড়াও তিনি ২০০৭ সালে ১৩ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত। তারপরও তার মনোনয়নপত্র বৈধ করা হয়েছে। হাজী সেলিম, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার কথা তো আগেই বলেছি।’

বিএনপির শীর্ষ এই নেতা জানান, ‘জনগণের অধিকার নিয়ে এত জুলুম করার কারণে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন আওয়ামী লীগের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী ইসি সচিব হেলালুদ্দীন। তার সাথে সার্বক্ষণিক একজন নিরাপত্তারক্ষী নিয়োজিত থাকলেও ভরসা পাচ্ছেন না। তিনি ব্যক্তিগত নিরাপত্তা আরো বাড়াতে চান। সেই লক্ষ্যে পিস্তলধারী নয়, এবার শর্টগানধারী একজন নিরাপত্তারক্ষী চেয়ে পুলিশের কাছে আবেদন করেছেন। হেলালুদ্দীন এসির মধ্যে নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে থেকে বাড়তি নিরাপত্তা দাবি করছেন ভালো কথা, কিন্তু জনগণের নিরাপত্তার কথা কী একবার বিবেচনা করছেন? কোনো ভোটার এখনো নিরাপদ নয়। ভোটাধিকার প্রয়োগে ভোটাররা শঙ্কিত ও অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে।’

রিজভী জানান, ‘সারাদেশে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারদের যে তালিকা সরবরাহ করছে সেগুলোই ইউএনওদেরকে মানতে বাধ্য করা হচ্ছে। আমরা বিভিন্নভাবে জেনেছি যে, নির্বাচনের দিন ভোট গণনা শুরু হওয়া থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত আওয়ামী ক্যাডাররা পরিকল্পিতভাবে গোলমাল করবে, এই সুযোগে আওয়ামীমনা প্রিজাইডিং অফিসার ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসাররা ভোট গ্রহণ বন্ধ করে দিয়ে ভোট নিয়ে কোনো ফন্দি-ফিকির করবে।’

তিনি বলেন, ‘কিন্তু আমি মনে করি পুরো পরিস্থিতি বদলে যাবে। সুবিধাভোগী কিছু কর্মকর্তা ছাড়া মানুষের অধিকারের ব্যাপারে জনপ্রশাসন ও পুলিশের সবাই বাধা হয়ে দাঁড়াবে না। আমরা বিশ^াস করি- জনপ্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনে কান্ডজ্ঞান ও নৈতিক মানসম্পন্ন ব্যক্তিরা এখনো আছেন। ভোট হচ্ছে জনগণের শক্তি। সব জনপ্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা জনগণের বিরুদ্ধে দাঁড়াবে না। জেল জুলুম হুলিয়া, গ্রেফতার, হুমকি ও গুম খুনের ভয়কে জয় করে সব প্রতিকূল পরিবেশের মধ্যেও ভোটাররা বেরিয়ে এসে সাহসের ভোট কেন্দ্রে যাবে। এ ছাড়া তরুণ ভোটাররা এবার হবে সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করার অগ্রদূত। এর মধ্যে আড়াই কোটি নতুন ভোটার এবার প্রথম ভোট দেবেন। এই তরুণ ভোটাররাই স্বৈরাচারীর সকল বাধার বিন্দাচল অতিক্রম করে তাদের অধিকার প্রয়োগের জন্য ভোটকেন্দ্রে যাবেন। এই জালিমশাহীর পতন ঘটবে ইনশা-আল্লাহ।’

সারাদেশে এখনো গ্রেফতার হামলা-মামলার চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের গাড়ি লক্ষ করে ককটেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। এতে বিএনপির পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- বিএনপি নেতা স্বপন, নাইমুল ইসলাম কাঠার, মো: মিন্টু, আবদুল্লাহ ও মামুন। আহতদের বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। একজন জাতীয় নেতার ভাগ্নে রিমনের নেতৃত্বে ৫০-৬০ জন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী মওদুদ আহমদের গাড়ি লক্ষ করে পরপর ২৫-৩০টি ককটেল নিক্ষেপ করে। ফেনী জেলা ছাত্রদলের নজরুল ইসলাম দুলাল, ভোলার লালমোহন থানা বিএনপির আব্দুল কাদের মার্শাল হিমুকে ঢাকার ধানমন্ডী থেকে গতকাল ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করেছে। মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ যুবদল নেতা জয়নুল চৌধুরীকে থানার দারোগা হামিদ ফোনে হুমকি দিয়ে এলাকা ছাড়তে বলেছে, ধানের শীষের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা না চালাতে হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেছে। হবিগঞ্জের লাখাই থানা বিএনপির শামসুদ্দিন এবং যুবদলের তাউস মিঞাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনসুর আলমের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ২০/২৫ জন নেতাকর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের খালেদা জিয়া হলের সামনে হলগেট ও নির্দেশিকায় থাকা নামফলক তুলে দেয়ায় তীব্র নিন্দা জানাই। এছাড়া মহিলা দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি রাজিয়া আলীমকে বংশালের নিজ বাসা থেকে, মোহাম্মদপুরের বিএনপি নেতা চৌধুরী বকশীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় গায়েবি মামলায় জামিনে থাকাবস্থায় নরসিংদী কোর্টে হাজিরা দিতে গেলে জামিন বাতিল করে অ্যাডভোকেট অলিউর রহমান কাউছার, নাসির উদ্দিন ভুইয়া, আব্দুল হাই, ফারুক ভুইয়া, মো: ফরিদ মিয়া, আব্দুল্লাহ আল-হোসাইন তারেক, আবুল কালাম আজাদ, জোহান মিয়াসহ ১৬ জনকে জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠিয়েছে। বিএনপি অন-লাইন প্রবাসী ফোরাম সভাপতি- জাহাঙ্গীর আলমকে বরিশাল থেকে গ্রেফতার করে ঢাকায় এনে দুদিন নিখোঁজ রেখে অমানবিক নির্যাতনের পর আদালতে হাজির করা হয়।

দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারে নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান রিজভী।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting