| |

সর্বশেষঃ

‘সর্বকনিষ্ঠ’ ডা. সানসিলাকেই বেছে নিল বিএনপি

আপডেটঃ ৬:১৭ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ০৮, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগেই আলোচনায় এসেছিলেন ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কা। তিনি নিজেই দাবি করেছিলেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন দাখিলকারীদের মধ্যে তিনিই সর্বকনিষ্ঠ।

আলোচিত ডা. প্রিয়াঙ্কা শেরপুর-১ (সদর) আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। গতকাল শুক্রবার বিএনপি ২০৬ আসনে চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করেছে।

এতে দেখা গেছে, শেরপুর-১ আসনে ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কাকেই বেছে নিয়েছে প্রায় এক যুগ ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি।

শেরপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হযরত আলীর মেয়ে ডা. সানসিলা জেবরিন। ২৭ বছর বয়সী এই চিকিৎসক রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রভাষক।

এই আসনে ডা. প্রিয়াঙ্কা ও তার বাবা হযরত আলী বিএনপির পক্ষে মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। কিন্তু, যাচাই-বাছাইয়ে হযরত আলীর মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করা হয়।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানা গেছে, হযরত আলী বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবি প্রতিবেদনে ঋণখেলাপি এবং বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।

কারাবন্দি বাবার মনোনয়ন টিকবে জেনেই তফসিল ঘোষণার পর থেকে ডা. সানসিলার নেতৃত্বে মাঠে সরব রয়েছে হযরত আলীর পরিবার।

১৪টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত শেরপুর-১ আসনে বিএনপি, এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ডা. সানসিলা নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন।

জোটের স্বার্থে বিগত চারটি জাতীয় নির্বাচনে শেরপুর-১ আসনটি জামায়াতে ইসলামীকে ছেড়ে দেয় বিএনপি। একবারও জয়ের মুখ দেখেনি। কিন্তু, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতাসীন হওয়ার পর জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসি কার্যকর হয়। ফলে সেখানে এবার বিএনপি প্রার্থী দেয়ার সুযোগ পায়।

অন্যদিকে এই আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ চারবারের এমপি ও হেভিওয়েট প্রার্থী হুইপ আতিউর রহমান আতিককেই বেছে নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। ফলে তার সঙ্গে লড়াই হবে ডা. সানসিলা জেবরিনের।

ডা. সানসিলা জেবরিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘দীর্ঘ সময় পর এ আসনে বিএনপি থেকে প্রার্থী দেয়া হয়েছে। মানুষ ধানের শীষে ভোট দেয়ার জন্য মুখিয়ে আছেন। সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী হিসেবে আমি মনে করি, রাজনীতিতে হার-জিত থাকবেই। যদি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়, তবে ১৪০টি কেন্দ্রেই ধানের শীষের জয় হবে।’

বিএনপি এবার ডা. সানসিলা জেবরিনসহ ১০ নারী প্রার্থীকে চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন দিয়েছে। তারা হলেন, ঢাকা-১১ আসনে শামীম আরা বেগম, ফরিদপুর-২ শামা ওবায়েদ, রংপুর-৩ রিটা রহমান, নাটোর-১ কামরুন্নাহার, নাটোর-২ সাবিনা ইয়াসমিন ছবি, সিরাজগঞ্জ-১ রুমানা মোরশেদ কনকচাঁপা, ঝালকাঠি-২ জেবা আমিন খান, নেত্রকোনা-৪ তাহমিনা জামান শ্রাবনী এবং কক্সবাজার-১ আসনে হাসিনা আহমেদ।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting