| |

সর্বশেষঃ

পুরান ঢাকা ও বনানীর অগ্নিকান্ড থেকে শিক্ষা নেয়ার সময় হয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেটঃ ৭:০৯ অপরাহ্ণ | মার্চ ২৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রাজধানীর পুরান ঢাকা ও বনানীর এফ আর টাওয়ারের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের দুঃখজনক ঘটনা থেকে আমাদের শিক্ষা নেয়ার সময় হয়েছে। উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত এবং বিল্ডিং কোড মেনে ভবন নির্মিত হলে ভবিষ্যতে এরকম বড় ধরণের ক্ষতির হাত থেকে দেশবাসি রক্ষা পাবে।
শুক্রবার দুপুরে সিলেটের গোলাপগঞ্জের ড্রিমল্যান্ড পার্কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এক্স-স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন, সিলেটে’র পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
ড. মোমেন এসময় আরও বলেন, রানা প্লাজার দুর্ঘটনার পর আমাদের গার্মেন্টসগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনেক বেশি উন্নত হয়েছে। কিন্তু, বড় বড় ভবনের সেইফটি এন্ড সিকিউরিটি এখনও নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।
তিনি বলেন, আমরা এখন উন্নত হচ্ছি। কিন্তু উন্নত প্রযুক্তি এখনও পুরোপুরি সংযুক্ত করা সম্ভব হয়নি।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘উন্নত দেশগুলোতে যতগুলো ভবন হয় সেগুলোতে জরুরি মুহূর্তের জন্য স্প্রিং ক্লাব, স্কেইপ এক্সিট থাকে। ভবনগুলো নির্মাণ হয় রাস্তার পাশে। রাস্তায় সবসময় ফায়ার হাইড্রেন থাকে এবং সেখান থেকে পানি পাওয়া যায়। বাংলাদেশেও সড়ক নির্মাণের সময় ফায়ার হাইড্রেন ব্যবহার নিশ্চিত করা প্রয়োজন।’
মোমেন বলেন, ‘বাসাবাড়ি নির্মাণের সময় রাস্তার জন্য প্রশস্ত জমি রাখা জরুরি। অন্যথায়, কোথাও আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ও এম্বুলেন্স প্রবেশ করতে পারবে না। ফলে নিজেদেরই ক্ষতি হয়ে যাবে।’ একইসঙ্গে সকলের মধ্যে এ বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।
ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় এক্স-স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন, সিলেটের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সার্টিফিকেট, জমির দলিল, পাসপোর্টসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র অনেক সময় জালিয়াতি হয়। এসব জালিয়াতি রোধে ডিজিটাল সত্যায়ন ব্যবস্থা চালু করা হবে। যার মাধ্যমে কয়েক মিনিটের মধ্যে এসব কাগজপত্র সত্যায়িত করা সম্ভব হবে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্স-স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন সিলেটের আহ্বায়ক, সিলেট এমসি কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সালেহ আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুল আউয়াল বিশ্বাস, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান, মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমানসহ সিলেটে অবস্থানরত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

HostGator Web Hosting