| |

সর্বশেষঃ

স্থিতিশীল সবজির বাজার

আপডেটঃ ২:৩৩ অপরাহ্ণ | মে ১৬, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : দাম চড়া হলেও রাজধানীতে স্থিতিশীল রয়েছে সবজির দর। বাজরে প্রতি কেজি ঢেঁড়স ৩০ টাকা, কচুর লতি ৬০ টাকা, করলা ৫০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা, ফুলকপি ৪০ টাকা, বাধা কপি ৪০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

বুধবার রাজধানীর দক্ষিণ বনশ্রী কাঁচাবাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

এছাড়া ধুন্দুল ৬০ টাকা, বরবটি ৫০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, কাঁচকলা ৩০ থেকে ৪০ টাকা হালি, কাঁচা পেঁপে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, বাজারে প্রতিকেজি কচুমুখী ৮০ টাকা, লাউ ৩০ থেকে ৫০ টাকা, জালি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, শসা ৪০ থেকে ৫০ টাকা, পাকা টমেটো ৩০ থেকে ৫০ টাকা কেজি ও লেবু প্রতি হালি প্রকারভেদে ২০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

সবজির পাশাপাশি বাজারে মিলছে হরেক রকমের শাক। পাটের শাক প্রতি আটি ১০ টাকা, পুঁইশাক ৩০ টাকা, লালশাক ১০ টাকা আটি, লাউ ও কুমড়ার শাক ৪০ টাকা, ডাটা শাক ২০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

বাজারে প্রতিকেজি আলু ১৮ থেকে ২০ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ২৫ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৩৫ টাকা, কাঁচা মরিচ ৮০ টাকা, ধনে পাতা ২০০ টাকা, পুদিনা পাতা ২০০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

প্রতিকেজি ফার্মের সাদা মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা, ফার্মের লাল মুরগি ২০০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এদিকে, সিটি করপোরেশন নির্ধারিত দামে গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫২৫ টাকা, খাসির মাংস ৭৫০ টাকা।

মাছের বাজারে প্রতিকেজি রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকা, তেলাপিয়া প্রতিকেজি ১৬০ টাকা, বাইলা মাছ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা।

এদিকে আইড় মাছ প্রতিকেজি ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা, টেংরামাছ বড় সাইজের ৮০০ টাকা, শিং মাছ ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এছাড়া চিংড়ি মাছ ৫০০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা কেজি, ইলিশ ৮০০ থেকে ১৪০০ টাকা কেজি, পাঁচ মিশালি ২৮০ থেকে ৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

HostGator Web Hosting