| |

সর্বশেষঃ

জমে উঠছে ঈদবাজার : বাড়ছে ক্রেতাদের ভিড়

আপডেটঃ ২:৫৬ অপরাহ্ণ | মে ২৩, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : মুনতাসির আহমেদ ও রুবিনা আলম দম্পতি এবার একটু আগেই গ্রামের বাড়ি যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন। কেনাকাটাও তাই আগেই সারতে হবে। মঙ্গলবার (২১ মে) বাজেট ও পছন্দ অনুযায়ী ঈদের জামা কিনতে এসেছিলেন রাজধানীর নিউমার্কেটে। নিজেদের পাশাপাশি নিকটাত্মীয়-স্বজনদের জন্য নিয়েছেন শার্ট, প্যান্ট, লুঙ্গি ও শাড়ি।

শুধু এ দম্পতিই নয়, মুসলমানদের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতরের সময় নিকটবর্তী হওয়ায় প্রতিবছরের মতো এবারও জমে উঠতে শুরু করেছে ঈদ বাজার।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিকেলে নিউমার্কেটের বিপণিবিতানগুলোতে অন্য সময়ের চেয়ে ভিড়। কেউ বা ইফতারের আগে আসছেন মার্কেটে আবার অনেকে কেনাকাটা সেরে বাসায় গিয়ে ইফতার করার জন্য বের হয়ে যাচ্ছেন। দু’হাতে শপিং ব্যাগ নিয়ে যাচ্ছিলেন জাহিদুল ইসলাম।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, কম দামের মধ্যে নিউমার্কেটে বাচ্চাদের ভালো পোশাক পাওয়া যায়। আজ তাদের জন্য নিলাম। নিজেদের জন্য পরে সময় করে কিনবো। নিউমার্কেটের বিপণিবিতানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজনিউমার্কেটের দ্বিতীয় তলায় বিসমিল্লাহ গার্মেন্টেসের বিক্রয়কর্মী রানা বলেন, রমজান শুরু হলেও এতোদিন কেনাকাটা তেমন ছিল না। আজ থেকে লোকজন আসছে। সামনে সেটি বাড়বে আরো। রোদ বেশি থাকায় দিনের চেয়ে ইফতারের পরে লোকজন আসে।

ঈদের আরো বেশ কিছুদিন বাকি থাকায় এখন বেশি চাহিদা ছোটদের পোশাকের। এমনটি জানালেন তাসীন ফ্যাশনের মেহেদী হাসান।

তিনি বলেন, সবাই চিন্তা করে আগে বাচ্চাদের পোশাক কিনবে। অনেকে নিজেদের জন্য নেয় সামর্থ্যের মধ্যে না হওয়ায়। আমাদের এখানে বাচ্চাদের ভালো প্যান্ট-শার্টের কালেকশন রয়েছে। বিক্রি মোটামুটি ভালো। পাঞ্জাবির দোকানগুলোর মধ্যে তুলনামূলক কম ভিড় দেখা গেলো। নিলয় ট্রেডার্স, টোকিও ফ্যাশনসহ বেশ কয়েকটি স্টলে ক্রেতাদের উপস্থিতি ছিল।

দিদার ফ্যাশনের দিদারুল ইসলাম বলেন, বিক্রি এখনো ভালোভাবে শুরু হয়নি। তবে সন্তোষজনক। বিশ রমজানের পর সবাই কেনাকাটা করবে। তখন অফিস ছুটি হবে। সবাই বাসায় যাওয়ার প্রস্তুতি নেবে। তখন বিক্রিটা বেশ জমে। নিউমার্কেটের পাশাপাশি চাঁদনী চক, নূরজাহানসহ আশপাশের মার্কেটেও ক্রেতাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

HostGator Web Hosting