| |

সর্বশেষঃ

একটি টিকিটের জন্য ২২ ঘণ্টা অপেক্ষা!

আপডেটঃ ২:১৯ অপরাহ্ণ | মে ২৬, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদে বাড়ি ফেরার টিকিট নিয়ে চলছে হাহাকার। গতকাল দুপুর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েও টিকিট পাচ্ছেন না অনেকে। ২২ ঘন্টা দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট পাওয়া যায়নি বলেও এক টিকিট প্রত্যাশী আপত্তি তুলেছেন সাংবাদিকদের কাছে।

রাজাধানী তেজগাঁও রেলস্টেশনে মো. রমজান নামে এক ব্যক্তি শনিবার দুপুর আড়াইটা থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে রোববার বেলা ১১টা পর্যন্ত টিকিটের সন্ধান পাননি বলে জানা গেছে।

তিনি বলেন, শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে এসেছি। তারপর থেকে এখানেই দাঁড়িয়ে আছি। কোনো ঘুম নাই, কিচ্ছু নাই।

আজ ২৬ মে শেষ হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রীম টিকিট বিক্রি। ৪ জুনের টিকিট দেয়া হচ্ছে আজ। গতকাল থেকেই ঢাকার বিভিন্ন স্টেশনে টিকিট কাটতে যাত্রীদের জড়ো হতে দেখা গেছে।

এদিকে কমলাপুর ও এয়ারপোর্ট রেলস্টেশনে দেখা গেছে একই চিত্র। অন্যান্য দিনের তুলনায় ভীড় কম থাকলেও টিকিটের লাইনে ধীরগতি দেখা গেছে। এতে টিকিট প্রত্যাশীরা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। অনেকে আবার অনন্যোপায় হয়ে ফিরেও যাচ্ছেন খালি হাতে।

উল্লেখ্য, কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে উত্তরবঙ্গ-পশ্চিমাঞ্চল ও খুলনা অঞ্চলে চলাচলকারী সুন্দরবন, চিত্রা, ধূমকেতু, বনলতা, সিল্কসিটি, পদ্মা, রংপুর, লালমনি, দ্রুতযান, নীলসাগর, একতা ও সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট দেয়া হচ্ছে। এই ১২টি ট্রেনের মোট ১১ হাজার ৬৯টি টিকিট দেয়া হবে। এছাড়া চারটি স্পেশাল মিলে মোট ১৬টি ট্রেনের ১৪ হাজার ৭০০ টিকিট বিক্রি হবে আজ।

যাত্রীরা ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে অ্যাপের মাধ্যমে কিনতে পারবেন। স্টেশন কাউন্টার থেকে ৫০ শতাংশ টিকিট অগ্রিম কিনে নতে পারবেন। অনলাই৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি না হলে অবিক্রিত টিকিট কাউন্টার থেকে দেয়া হবে। এদিকে রেলেক্রি র ফিরতি টিকেট বি২৯ মে শুরু হয়ে ২ জুন পর্যন্ত চলবে।

HostGator Web Hosting