| |

সর্বশেষঃ

অন্তঃসত্ত্বাকে নির্যাতন, ৪ দিনের রিমান্ডে আসামি নাসিমা

আপডেটঃ ৩:৩৭ অপরাহ্ণ | জুন ১৬, ২০১৯

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরে নকলার কায়দা গ্রামে অন্তঃসত্ত্বাকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেফতার নাসিমা আক্তারের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রোববার সকালে বিচারিক হাকিম শরীফুল ইসলাম খান রিমান্ড শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এদিকে জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব রোববার বেলা ১১টার দিকে নির্যাতিতা ওই গৃহবধকে দেখতে জেলা হাসপাতালে যান। তিনি তার শারীরিক অবস্থা এবং চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। এ বিষয়ে জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার নিদের্শ দেন। একইসঙ্গে তিনি ভিকটিম এবং তার পরিবারকে ন্যয়বিচার পেতে সকল প্রকার সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেন।

এ সময় সিভিল সার্জন ডা. মো. রেজাউল করিম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এহসানুল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আমিনুল ইসলাম, জেলা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. খাইরুল কবীর সুমনসহ জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে শনিবার রাতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন, জনউদ্যোগ, হিন্দু সম্পতিতে নারীর উত্তরাধিকার বাস্তবায়ন কমিটি শেরপুর জেলা শাখা নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে গঠিত একটি প্রতিনিধি দল জেলা হাসপাতালে ভর্তি ভিকটিমকে দেখতে যান এবং তার পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করেন।

জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঘটনাটি নির্মম, বর্বরোচিত এবং মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত এবং এরসঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

গত ১০ মে শেরপুরের নকলার কায়দা গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়। ওই নির্যাতনে তার গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগ ওঠে। ঘটনার এক মাস পর গত ১১ জুন নির্যাতনের একটি ভিডিও ভাইরাল হলে তোলপাড় শুরু হয়।

HostGator Web Hosting