| |

সর্বশেষঃ

ছাত্রদলের দুই নেতা ঠিক করবেন ৫৭৫ জন

আপডেটঃ ১:৪১ অপরাহ্ণ | জুন ২৫, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : ছাত্রদলের নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনে কাউন্সিলরদের নামের তালিকা প্রকাশ হয়েছে।

সোমবার ৫৭৫ কাউন্সিলর বা ভোটারের খসড়া তালিকা প্রকাশ করেন কাউন্সিল আয়োজক কমিটির প্রধান খায়রুল কবির খোকন।

ভোটার তালিকা প্রকাশের আগে খোকনসহ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির ৭ সদস্য নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৈঠক করেন।

ছাত্রদলের প্রতিটি সাংগঠনিক জেলা থেকে ৫ জন করে কাউন্সিলর নেয়া হয়েছে। সাংগঠনিক জেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজগুলোর কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি, যুগ্ম-সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকরা এই তালিকায় এসেছেন।

আগামী ১৫ জুলাই ছাত্রদলের কাউন্সিলে হবে। সেখানে এই ৫৭৫ জনের ভোটেই ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হবেন বলে জানিয়েছে বিএনপি।

এদিকে, নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ৭ দফা আচরণবিধি প্রকাশ করেছে। এতে এতে বলা হয়, প্রার্থীরা এককভাবে নির্বাচনে অংশ নেবেন, কোনো প্যানেল করা যাবে না। পোস্টার, ব্যানার ও গণমাধ্যমে প্রচার চালানো যাবে না। সভা-সমাবেশ, আপ্যায়ন ও কোনো ধরনের উপহার সামগ্রী দেয়া যাবে না।

সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেয়া কিংবা সংবাদ সম্মেলন ও টকশোতেও প্রার্থীরা অংশ নিতে পারবে না। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থীদের অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে।

কোনো প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি তার প্রার্থিতা বাতিলসহ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে পারবে বলেও এতে উল্লেখ করা হয়েছে।

সর্বশেষ ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর রাজীব আহসানকে সভাপতি ও আকরামুল হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রদলের কমিটি করা হয়।

গত ৩ জুন বিএনপি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দেয়।

এরপর নতুন কমিটি গঠনে বয়সসীমার একটি শর্ত যুক্ত করে দেয়। তাতে বলা হয়, ২০০০ সালের আগে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কেউ নেতা হতে পারবেন না।

এরপর থেকে ছাত্রদলের একাংশ আন্দোলন করছেন। তারা প্রতিদিনই নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছেন। ইতোমধ্যে বেশ কয়েক দিন অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটেছে।

ছাত্রদলের নেতা নির্বাচনে ৫৭৫ কাউন্সিলরের তালিকা দেখুন

HostGator Web Hosting