| |

সর্বশেষঃ

রূপপুরের ঘটনা ইমেজকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে : গণপূর্ত মন্ত্রী

আপডেটঃ ৩:১৯ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৮, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের কর্মীদের আবাসনের কেনাকাটা ও আসবাবপত্র ক্রয়ে দুর্নীতির ঘটনায় নিজ মন্ত্রণালয়ের ইমেজকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচার গণপূর্ত অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে মাঠ পর্যায়ে কর্মরত প্রকৌশলীদের বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, অনেক কিছুই আমরা চাইলে প্রত্যাশা অনুযায়ী করতে পারবো না। তারপরও সঠিকভাবে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। আমাদের এই ডিপার্টমেন্টে অধিকাংশ কর্মকর্তারা সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে কেউ কেউ অতিলোভী হয়ে ডিপার্টমেন্টের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে।

‘দুই একজনের জন্য অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে। তেমনি রূপপুরের এই ঘটনা আমাদের ইমেজকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। তবে একটি ঘটনা দিয়েই বিচার করলে হবে না।’

কর্মকর্তাদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা সততা নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করবেন। আপনাদের পথ যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’

‘আর বৃষ্টির আগে পেপার ওয়ার্কগুলো আমাদের শেষ করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই যেন বেশি সময় না লাগে, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে।’

গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, মাঠ পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তা যদি কোনো পলিটিশিয়ানের কাছ থেকে হয়রানির শিকার হন বা কেউ ভয়ভীতি দেখাতে চায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গে আমাকে জানাবেন। আমি যথাযথ ব্যবস্থা নেবো।

তিনি বলেন, কোনোভাবেই কেউ জোর করে কাজ নিবে বা টেন্ডারবাজি করার চেষ্টা করবে-এটি আমি কোনোভাবেই অ্যালাও করবো না।

সম্প্রতি চট্টগ্রামের একটি ঘটনা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘কিছুদিন আগে চট্টগ্রামে মাঠ পর্যায়ের একজন প্রকৌশলীর কোনো অপরাধ ছিল না। কিন্তু তিনি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির মধ্যে পড়েন। সেখানে আমি হস্তক্ষেপ করে তাকে রক্ষা করেছি। যারা অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে চেয়েছিল তারা হেরে গেছে।

অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীদের পদোন্নতির বিষয়টি তিনি দেখবেন বলেও আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি বলেন, পদোন্নতির জন্য মন খারাপ করবেন না। সবারই ধীরে ধীরে পদোন্নতি হবে। দেশটা আমাদের সবার, প্রতিটি কাজে সবাইকে অংশগ্রহণের দরকার।

মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে উত্থাপিত দাবি-দাওয়াগুলো প্রত্যাশা ও সামর্থ্যের মধ্যে পূরণেরও আশ্বাস দেন শ ম রেজাউল করিম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব মো. শহীদ উল্লাহ খন্দকার। আর এতে সভাপতিত্ব করেন গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ সাহাদাত হোসেন।

HostGator Web Hosting