| |

সর্বশেষঃ

ময়মনসিংহে পোনামাছ অবমুক্ত র‌্যালী ও আলোচনা জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন

আপডেটঃ ৩:৫৯ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৮, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : মাছ চাষে গড়বো দেশ-বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’ শ্লোগান নিয়ে মৎস্য সেক্টরের সমৃদ্ধি, সুনীল অর্থনীতির অগ্রগতি” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে র‌্যালী, পোনামাছ অবমুক্তকরণ ও আলোচনা সভার মাধ্যমে ময়মনসিংহে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসন ও জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকালে কালেক্টরেট ভবন সংলগ্ন পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করে জেলা প্রশাসনের সামনে থেকে র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের বিভিন্ন রাস্তাঘুরে জেলা পরিষদের হলরুমে আলোচনা সভার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন করা হয়।
এর আগে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নিরঞ্জন দেবনাথ পোনামাছ অবমুক্ত করেন। এ সময় মৎস্য বিভাগীয় পরিচালক ড. তপন কুমার পাল, জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক একেএম গালিভ খান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রউফ, হাসিনা আক্তার, কায়সার মুহাম্মদ মঈনুল হাসান, রাশেদুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
র‌্যালীশেষে আলোচনা সভায় অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নিরঞ্জন দেবনাথ, মৎস্য বিভাগীয় পরিচালক ড. তপন কুমার পাল, জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক একেএম গালিভ খান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রউফ, হাসিনা আক্তার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামূল আলম, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, কায়সার মুহাম্মদ মঈনুল হাসান, রাশেদুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় বক্তারা বলেন, দেশের জিডিপির ৩.৫৭ শতাংশ এবং কৃষিজ জিডিপির ২৫.৩০ শতাংশ আসে মৎস্যখাত থেকে। দেশের মোট জনগোষ্টির ১১ শতাংশ মানুষ জীবন জীবিকায় মৎস্যখাতের উপর নির্ভরশীল। প্রানিজ আমিষের চাহিদা পুরনে জেলার মাছের উৎপাদন ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৮৮২ মে.টন ও জেলার চাহিদা ১ লাখ ১৬ হাজার ৩৫৮ মে.টন।
বর্তমানে বায়ু দুষণ, পানি দুষণ, নদ-নদী জবরদখল হচ্ছে। এর পরও মৎস্যখাতে ব্যাপক সফলতা অর্জন সম্ভব হয়েছে। মাছ ও মাছের খাবার শুদ্ধ করতে না পারলে মৎস্য উৎপাদনখাতের রেকর্ড পরিমাণ সফলতা ধরে রাখা সম্ভব নয়।

HostGator Web Hosting