| |

সর্বশেষঃ

অবসরের জন্য দুই মাস সময় চেয়েছেন মাশরাফি

আপডেটঃ ৭:৫৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৯

বিশেষ সংবাদদাতা : হঠাৎ তড়িঘড়ি করে বিসিবি কার্যালয়ে মাশরাফি বিন মর্তুজা, তবে কি আজই (শনিবার) অবসরের ঘোষণাটা দিয়ে দেবেন? এমন প্রশ্নই উঁকি দিচ্ছিল সবার মনে। তবে জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তেমন কোনো ঘোষণা দিলেন না। বরং দুই মাস সময় চেয়েছেন সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য।

বিসিবির আজকের সংবাদ সম্মেলনটি মূলত ছিল হেড কোচ নিয়ে। টাইগারদের নতুন হেড কোচ হিসেবে রাসেল ডোমিঙ্গোর নামটিও ঘোষণা করা হয়েছে। এরই মধ্যে আরেকটি ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করছিলেন সবাই, তবে সেই অপেক্ষা বাড়লো।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, মাশরাফির সঙ্গে তার অনেকক্ষণ কথা হয়েছে। অবসরের বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আরও দুই মাস সময় চেয়েছেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক। তার এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি পাপন।

বিসিবি সভাপতি কেবল এটুকু বলেন, ‘আমরা সম্মানের সঙ্গেই ক্রিকেটারদের বিদায় দিতে চাই। তবে ঠিক কখন বিদায় নিতে হবে এটা ক্রিকেটারদেরও জানতে হবে।’

বিসিবি নীতিগতভাবে মাশরাফিকে অবসরের সুযোগ করে দিতে বদ্ধপরিকর এবং সে সুযোগ করে দিতেই জিম্বাবুয়েকে আমন্ত্রণ জানানোর চিন্তা। তিন জাতি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের পাশাপাশি জিম্বাবুয়ের সাথে খেলে যাতে মাশরাফি অবসরের ঘোষণা দিতে পারেন- সে ব্যবস্থা করাই হলো এ আমন্ত্রণের উদ্দেশ্য।

মাশরাফি চাইলে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান আর জিম্বাবুয়েকে নিয়ে যে তিন জাতি টি-টোয়েন্টি আসরের পর দুই বা তিন ম্যাচের একটি ওয়ানডে সিরিজ আয়োজন কিংবা অন্তত একটি ম্যাচ অনুষ্ঠানের চিন্তা ভাবনাও আছে।

যেহেতু আগামী বছর মে মাসের আগে টাইগারদের কোনো ওয়ানডেই নেই, আর সেটাও আয়ারল্যান্ডে এবং বর্ষপঞ্জি ঘেঁটে দেশের মাটিতে ওয়ানডে অন্তত আগামী এক বছরে নেই। তাই বিসিবি কায়মনোবাক্যে চেয়েছে মাশরাফিকে এখনই মানে, সেপ্টেম্বরের শেষ ভাগে (২৫ আগস্টের পর) না হয় অক্টোবরের প্রথমভাগে ওই দুই বা তিন ম্যাচ সিরিজের আয়োজন করতে। তবে মাশরাফি সময় চাওয়ায় এসব কিছু নিয়েই নতুন করে ভাবতে হচ্ছে।

HostGator Web Hosting