| |

সর্বশেষঃ

ফুলপুরবাসির দুঃখ কংসের বেণীপোড়ার মোড় : ভাঙনে বিলীন হচ্ছে বাড়ি ও জমি

আপডেটঃ ৭:৪৬ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৯, ২০১৯

ফুলপুর প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ফুলপুরে কংস নদীর বেণীপোড়া মোড় এলাকায় ব্যাপক ভাঙনে এলাকাবাসির দুঃখের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। অনেক পরিবার জমি বাড়ি হারিয়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন।
জানা যায়, উপজেলার পূর্ববাখাই এলাকায় কংস নদী একটি আশ্চর্য বাঁক নিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এখানে প্রায় চারশ’ মিটার দুরত্বের জায়গা নদী সোঁজা ভাবে না গিয়ে প্রায় ১০ কিলোমিটার দুরত্ব ঘুরে এসে প্রবাহিত হয়েছে। পূর্ববাখাই গ্রামের রাক্ষসখালি বাকে নদীটি সোঁজাসোঁজি প্রায় দু’শ মিটার দূরত্বের জায়গা প্রায় ৫ কিলোমিটার ঘুরে এসে আবার প্রায় দু’শ মিটার দূরত্বের জায়গা সোঁজাসোঁজি না গিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার ঘুরে বাঁশতলা এলাকার দিকে প্রবাহিত হয়েছে। যা এলাকাবাসির কাছে বেণীপোড়ার মোড় নামে পরিচিত। এ বৃত্তাকার বাঁকে দিনদিনই ভাঙন বেড়ে আরো ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। এতে পূর্ববাখাই, পশ্চিমবাখাই, বাতিকুড়া, নাসুল্যা ও ইটাখলা গ্রামের অসংখ্য মানুষের জমি ও বাড়ি ঘর ভেঙে নদীর পেটে বিলীন হচ্ছে। অনেক পরিবারকে জমি বাড়ি হারিয়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। এলাকাবাসির দাবি সরকারী ভাবে নদীটি খনন করে সোঁজা ভাবে প্রবাহিত করলে ভাঙন থেকে রক্ষা পাবেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মোফাখ্খারুল ইসলাম জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে কংস নদীর খনন কাজ চলছে। এ সময় সরকারী ভাবে বাঁকটি সোঁজা করলে দুর্ভোগের শেষ হতো। এতে নদীর বাঁকের শত শত একর জমি আবাদের আওতায় চলে আসতো। সাবেক ইউপি সদস্য মোক্তার উদ্দিন জানান, এটুকু জায়াগা নৌকায় পাড়ি দিতে খড়ের একটি বড় বেণী পুড়ে যাওয়ায় নাম হয়েছে বেণীপোড়ার মোড়। এ নদীর ভাঙনে আমাদের অনেকের জমি ওপারে চলে যাওয়ায় বেদখল হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, সংসদ সদস্যের ডিউ লেটারসহ আবেদন করায় খনন শুরু হয়েছে। এ বিষয়েও সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদের সহায়তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করব।

HostGator Web Hosting