| |

সর্বশেষঃ

রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

আপডেটঃ ৪:১২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। বুধবার দুপুর ২টার দিকে শুনানি শেষে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন। অভিযোগপত্র গ্রহণ করে এ মামলার পলাতক নয় আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন বিচারক।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মজিবুল হক কিসলু বলেন, শুনানি শেষে রিফাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন আদালত। একই সঙ্গে মামলার পলাতক নয় আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। মামলার চার্জ গঠনের জন্য আগামী ৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত। ওই দিন সব আসামিকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দেয়া হয়।

আইনজীবী মজিবুল হক কিসলু আরও বলেন, রিফাত হত্যা মামলার শুনানির আগে মো. সাগর, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজোয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, রাফিউল ইসলাম রাব্বির জামিনের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

আদালত সূত্র জানায়, ১ সেপ্টেম্বর আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় স্ত্রী মিন্নিসহ ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বরগুনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির।

বুধবার সকালে অভিযোগপত্রের শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও মামলার মূল নথি বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে থাকায় শুনানি শুরু হতে বিলম্ব হয়। এ অবস্থায় বেলা ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী অভিযোগপত্র শুনানির জন্য দুপুর ২টায় সময় নির্ধারণ করেন।

এদিন শুনানির জন্য বরগুনা জেলা কারাগারে থাকা রিফাত হত্যাকাণ্ড মামলার সাত আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। তারা হলেন মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজোয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, রাফিউল ইসলাম রাব্বি ও মো. সাগর।

borguna

এছাড়া এ মামলায় জামিনে থাকা আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি ও আরিয়ান হোসেন শ্রাবণ আদালতে উপস্থিত হয়েছেন তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে। বাবার মোটরসাইকেলে চড়ে আদালতে যান মিন্নি। শুনানি শুরু হওয়ার আগেই আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়ান এ মামলায় গ্রেফতার আসামিরা।

আসামিপক্ষের আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, রিফাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। এদের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধি ৩০২, ৩৪, ১৩৯, ১২০ (বি-১) ধারায় অভিযোগ গ্রহণ করা হয়। পাশাপাশি শিশু-কিশোর অভিযুক্তদের অভিযোগ আমলে নিয়ে সেই আদেশ শিশু আদালতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

রিফাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ২৪ জনের মধ্যে ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ মামলার প্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্ত মো. মুছা, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, মো. হাসান, কিশোর অভিযুক্ত মো. আবদুল্লাহ ওরফে রায়হান, মো. সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ ওরফে মহিবুল্লাহ, মারুফ মল্লিক, প্রিন্স মোল্লা পলাকত রয়েছেন। মামলার এজাহারে প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

HostGator Web Hosting