| |

সর্বশেষঃ

দুর্নীতি-অপকর্মের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে : ওবায়দুল কাদের

আপডেটঃ ৮:২৩ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্নীতি-অপকর্মের বিরুদ্ধে চলমান শুদ্ধি অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, যতদিন দুনীতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি বন্ধ না হবে, ততদিন শেখ হাসিনা সরকারের এই শুদ্ধি অভিযান চলমান থাকবে।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে চতুর্থ শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাদের একথা বলেন। শিল্পকলা একাডেমি ও পিপলস থিয়েটার এই উৎসবের আয়োজন করে।

চলমান অভিযান নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে, অপকর্মের বিরুদ্ধে, খারাপ কাজের বিরুদ্ধে, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। যতদিন আমরা এই শিশুদের জন্য নিরাপদ বাসস্থান, নিরাপদ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে না পারবো, ততদিন এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। যতদিন পর্যন্ত এই শিশুদের মুখে হাসি না ফুটবে, ততদিন শেখ হাসিনার সরকারের এই অভিযান, নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে অভিযান, শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে, অন্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে।শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধন করেন ওবায়দুল কাদেরসহ অতিথিরা। ছবি: শাকিল আহমেদশিশুদের সাংস্কৃতিক চর্চায় উৎসাহিত করার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংস্কৃতি হচ্ছে জীবনের পাল তোলা নৌকা। এই নৌকা যতদিন চলমান থাকবে, ততদিন বাংলাদেশ থাকবে। এই সংস্কৃতির পাল তোলা নৌকাকে চলমান রাখতে হবে। এখানে অনেক দুঃখ আছে, বেদনা, হতাশা, ভয় ও আতঙ্ক আছে। আবার এখানে বেঁচে থাকার অনেক সুন্দর আচ্ছাদনও আছে। এখানে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি সার্বক্ষণিক জেগে থাকেন, তাই বাংলাদেশ নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারে।

‘হতাশ হওয়ার কারণ নেই, এখানে একজন সংস্কৃতিবান্ধব প্রধানমন্ত্রী আছেন। তিনি যতদিন আছেন ততদিন সংস্কৃতি পৃষ্ঠপোষকতা হারাবে না, অবহেলা হবে না। আমি এখানে আসার আগে বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানাতে গিয়েছিলাম। তাকে এই অনুষ্ঠানের কথা বলেছি। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানাও ছিলেন। তারা দুই জন এই অনুষ্ঠানের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং সফলতা কামনা করেছেন।’

শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন শিল্পকলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক শিল্পী মুস্তাফা মনোয়ার, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামাল বায়েজিত প্রমুখ।

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই উৎসব চলবে। সারাদেশ থেকে ১০ হাজার শিশু-কিশোর এই উৎসবে অংশ নিচ্ছে। ১৫০টি শিশু-কিশোর নাট্যদল এতে অংশ নেবে এবং ৯৫টি নাটক মঞ্চস্থ হবে।

HostGator Web Hosting