| |

সর্বশেষঃ

টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ৬ গুণীজনকে সম্বর্ধনা

শত কোটি টাকা ব্যায়ে সাংস্কৃতিক পল্লী হচ্ছে ময়মনসিংহে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

আপডেটঃ ৬:১১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৯

মঈন উদ্দিন রায়হান, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ বাবু এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকার সুস্থ ধারার সংস্কৃতির চর্চা, বিকাশ ও এর উন্নয়নে ব্যাপক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এ লক্ষে দেশের প্রতিটি উপজেলায় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে তোলার কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ময়মনসিংহের রয়েছে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। এই ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে ময়মনসিংহে একটি সাংস্কৃতিক বলয় প্রতিষ্ঠার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের জন্য সকল প্রস্তুতিও এগিয়ে চলছে। একনেকের সভায় সেটি উপস্থাপনের প্রস্ততি নেয়া হচ্ছে। এতে ব্যায় হবে একশ’ কোটি টাকা। তিনি আরও বলেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীনের শহর ময়মনসিংহে শত কোটি টাকা ব্যায়ে এই সাংস্কৃতিক পল্লী গড়ে তোলা হলে শিল্প সংস্কৃতির লীলাভুমি ময়মনসিংহে শিল্প সাহিত্যের আরও বিকাশ ঘটবে। ময়মনসিংহ টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন।
ময়মনসিংহ টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সাংবাদিকতা ও সাহিত্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় ছয় গুণীজনকে সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে গুণীজনদের এই সংবর্ধনা দেয়া হয়। ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উদ্বোধন ও গুণীজনদের হাতে ক্রেষ্ট তুলে দেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু এমপি।
সংবর্ধিত গুণীজনরা হচ্ছেন, সাংবাদিকতায় দৈনিক জাহান সম্পাদক অধ্যাপিকা রেবেকা ইয়াসমিন, দৈনিক স্বদেশ সংবাদ সম্পাদক শ্রী জগদীস চন্দ্র সরকার, স্বাস্থ্য সেবায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. নাছির উদ্দীন আহমেদ, শিক্ষায় অধ্যাপক মোকাররম হোসায়েন, ক্রীড়ায় অধ্যাপক আমির আহম্মদ চৌধুরী রতন ও সাহিত্যে কবি ফরিদ আহমেদ দুলাল।
এসময় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, গুণীজনের কাছ থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। কেন না গুণীজন আমাদের সমাজের অহংকার। তাদের আদর্শ, চিন্তা ও চেতনা সমাজকে সুপথে পরিচালিত করতে দিক নির্দেশনা দেয়। পেশাদার সাংবাদিকদের গুনগত মানোন্নয়নে এই ধরনের আয়োজন সাংবাদিকদের অনুপ্রাণিত করবে। সেই সাথে অন্যান্য পেশার সফল মানুষদের নিয়ে আজকের এই আয়োজন সুন্দর সমাজ বিনির্মানে অনন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে। আগামীতেও এই ধরনের আয়োজন অব্যাহত রাখতে আয়োজকদের প্রতি আহবান জানান সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী।
ময়মনসিংহ টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি বাবুল হেসেনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি অধ্যাপক ড. লুৎফুল হাসান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, প্রেসক্লাব সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন আহাম্মেদ প্রমুখ। পরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব প্রাঙ্গন থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে।

HostGator Web Hosting