| |

সর্বশেষঃ

  • মুজিব বর্ষ

১৩৭ কেজির কৈভোল মাছ লাখ টাকায় বিক্রি

আপডেটঃ ৭:২৩ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৭, ২০২০

বিশেষ সংবাদদাতা : খুলনার বাজারে ১৩৭ কেজি ওজনের সামুদ্রিক কৈভোল মাছ বিক্রি হলো এক লাখ পাঁচ হাজার টাকায়। বৃহস্পতিবার রূপসা পাইকারী মৎস্য বাজারে এ মাছটির দেখা মেলে। মাছটি ওঠার পরই মানুষের হাঁকডাক বেড়ে যায়। এটি কৈকোরাল নামেও পরিচিত বলে জানান মৎস্য বিশেষজ্ঞরা।

বাজার কমিটির নির্বাহী পরিচালক মো. রমজান আলী হাওলাদার জানান, ‘প্রথমে এক ক্রেতা মাছটির দাম বলেন ৬০ হাজার টাকা। এরপরই মাছের দাম বাড়তে থাকে। শেষ পর্যন্ত এটির দাম ওঠে এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা। এ মাছটি বৃহস্পতিবার সোহান ফিশ নামে মাছের আড়তে আসে। এরপর থেকেই খবর ছড়িয়ে পড়ে। আর উৎসুক জনতার ভিড় বাড়তে থাকে। সাধারণ মানুষ মাছের সঙ্গে সেলফি তুলতে শুরু করেন।’

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার জেলে গোবিন্দ সরকার জানান, গভীর সমুদ্রে মাছটি ধরা পড়ার পর তিনি রূপসা মৎস্য বাজারে নিয়ে আসেন। দাদন দেওয়া জেলেদের বেন্টি জালে এ মাছটি ধরা পড়ে। এর আগে এতো বড় সামুদ্রিক কৈভোল মাছ তিনি দেখেননি।

জনতার কাতারে থাকা মো. সেলিম আহমেদ জানান, প্রতিদিন অনেক মাছ এ বাজারে আসে। কিন্তু এ মাছটি অনেক বড়। এ মাছের সঙ্গে অনেকে সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছে। স্মৃতি ধরে রাখতে তিনিও সেলফি ও ছবি তুলে রেখেছেন।

সর্বোচ্চ দর দিয়ে মাছটির ক্রেতা মো. রমজান আলী হাওলাদার জানান, ‘মাছটি ৫০ জন মিলে কিনেছি। যা বাজারেই কেটে ভাগ করে নিয়েছি। এ ধরনের মাছ যে কেউ কাটতে পারে না। সে কারণে বড় বাজার থেকে অভিজ্ঞ লোক এনে মাছটি কাটাতে হয়েছে।’

মাছটি কাটার কাজে নিয়োজিত মো. মোতালেব জানান, ‘এ মাছটি অনেক বড়। প্রায় একটি বড় মহিষের সমান।’

চট্রগ্রাম সামুদ্রিক বিভাগের (মেরিন ফিশারিজ) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. শরিফ উদ্দিন বলেন, ‘কৈভোল মাছ দেড়শ থেকে দুইশ কেজি ওজনের হতে পারে। অনেক আগে আমি নিজেও দুইশ কেজি ওজনের একটি কৈভোল মাছ দেখেছি। তবে সাম্প্রতিক সময়ে ধরা পড়া সামুদ্রিক মাছের মধ্যে ১৩৭ কেজি ওজনের এ কৈভোলটি সবচেয়ে বড়। এই মাছ বাংলাদেশ উপকূলে বেশি দেখা যায় না। তবে বিশ্বে অন্যান্য জায়গায় এ সামুদ্রিক মাছ এখনও ধরা পড়ে।’

HostGator Web Hosting