| |

সর্বশেষঃ

গফরগাঁওয়ে স্বামীর লাশ দাফনের প্রস্তুতির সময় উদ্ধার, স্ত্রী-সন্তান আটক

আপডেটঃ 7:29 pm | August 07, 2020

গফরগাঁও সংবাদদাতা : ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার খারুয়া মুকুন্দ গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে পেশায় রিকশাচালক খোকন মিয়া (৪৫)’র লাশ দাফনের প্রস্তুতির সময় উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী, ছেলে ও মেয়েকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) দুপুরে গফরগাঁও উপজেলার খারুয়া মুকুন্দ গ্রামে দাফনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় পুলিশ এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী রেনুয়ারা বেগম (৪০), মেয়ে লিজা (২৫) এবং ছেলে রাসেলকে (২০)কে আটক করা হয়। তার আগে বৃহস্পতিবার ভোরে ভালুকা উপজেলার স্কয়ার মাস্টারবাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসার পেছনের কাঁঠাল গাছে খোকন মিয়ার লাশ ঝুলতে দেখে পরিবারের লোকজন। পরে লাশ গাছ থেকে নামিয়ে গফরগাঁও উপজেলার খারুয়া মুকুন্দ গ্রামের বাড়িতে দাফনের জন্য নিয়ে আসে পরিবারের লোকজন।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, গফরগাঁও উপজেলার রাওনা ইউনিয়নের খারুয়া মুকুন্দ গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে খোকন মিয়া তার স্ত্রী, ছেলে মেয়েকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী ভালুকা উপজেলার স্কয়ার মাস্টারবাড়ি এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস ও রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে ভালুকা উপজেলার স্কয়ার মাস্টারবাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসার পেছনের কাঁঠাল গাছে খোকন মিয়ার লাশ ঝুলতে দেখে স্ত্রী, ছেলে ও মেয়ে। তাদের দাবি, খোকন মিয়া ফাঁসিতে আত্মহত্যা করেছেন। পরে লাশ নামিয়ে গফরগাঁও উপজেলার রাওনা ইউনিয়নের খারুয়া মুকুন্দ গ্রামের বাড়িতে দাফনের জন্য নিয়ে আসে পরিবারের লোকজন। কিন্তু লাশের গলায়, অণ্ডকোষে, পায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হলে পুলিশে খবর দেন।

গফরগাঁও থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল আবেদীন জানান, ‘সঙ্গীয় ফোর্সসহ লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি ও ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী রেনুয়ারা বেগম, মেয়ে লিজা ও ছেলে রাসেলকে আটক করা হয়।’

গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) অনুকুল সরকার বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। জিডিমূলে আমরা লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন ও ময়নাতদন্ত করাবো। ঘটনাস্থল ভালুকা হওয়ায় ভালুকা থানা পুলিশ মামলা বা পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী ও ছেলে মেয়েকে থানায় আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি।’

HostGator Web Hosting