| |

সর্বশেষঃ

রতন স্যার চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ফেনীতে

আপডেটঃ 10:21 pm | October 16, 2020

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, ক্রীড়া সংগঠক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক সর্বজন শ্রদেয় অধ্যাপক আমীর আহমেদ চেীধুরী রতন স্যার বৃহস্পতিবার রাত ১১.১৫ মিনিটে ঢাকায় বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। (ইন্নালিল্লাহে ওয়া……রাজেউন)। মৃত্ত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। ১৬ অক্টোবর শুক্রবার বাদ জুমা আঞ্জুমান ঈদগাহ মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি, ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এমপি, জেলা প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালু রহমান বাবু, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আমিনুল হক শামিম, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামূল আলম, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও স্থানীয় বিভিন্ন পেশা ও শ্রেনীর মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। জানাযা শেষে লাশবাহী ফ্রিজিংগাড়ি করে মরহুমের লাশ নিয়ে রওনা করা হয় তাঁর জন্মস্থান ফেনীর উদ্দেশ্যে। সেখানে পুনঃ জানাযার পর পারিবারিক গোরস্থানে মরহুম পিতা-মাতার কবরের পাশেই দাফন করা হবে বলে তাঁর পারিবরিক সুত্র জানায়।
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আমীর আহমেদ চেীধুরী রতন স্যারের মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি, শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপি, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু এমপি, আওয়ামীলীগ সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসিম কুমার উকিল, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু গভীর শোক প্রকাশ ও পরিবারে প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
এর আগে অধ্যাপক আমীর আহমেদ চেীধুরী রতন স্যারের মরদেহ শুক্রবার সকালে তার প্রিয় স্কুল মুকুল নিকেতনে নিয়ে আসলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ছাত্র/ছাত্রী, সাবেক ছাত্র/ছাত্রী ফুলদিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান, এসময় প্রিয় শিক্ষককে শেষ বার এক নজর দেখার জন্য ছাত্র/ছাত্রীর ঢল নামে। পরে আঞ্জুমান ঈদগাহ মাঠে প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তি, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ ফুলদিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান।
উল্লেখ্য আমির আহমেদ চৌধুরী ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ইউনিয়নের হাসানপুর চৌধুরী বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। এরপর তার বেড়ে ওঠা ও পড়াশোনা ময়মনসিংহ শহরেই। ১৯৫৬ সালে তিনি সিটি কলেজিয়েট স্কুল থেকে দ্বিতীয় বিভাগে ম্যাট্রিক পাস করেন। এরপর ১৯৫৮ সালে আনন্দ মোহন কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট ও ১৯৬০ সালে একই কলেজ থেকে বিএ পাস করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে মেধা তালিকায় নবম স্থান নিয়ে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। তার ৫৬ বছর শিক্ষকতা জীবনে ১৯৬৪ সালের আগস্ট মাসে ময়মনসিংহের গৌরীপুর কলেজে অধ্যাপনার মাধ্যমে শুরু হয় তার শিক্ষকতার জীবন। গৌরীপুর কলেজে তিনি ছিলেন ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত। ১৯৮৩ সাল থেকে তিনি যোগ দেন ময়মনসিংহের মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে। শিশুকাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত তার ঠিকানা শহরের মহারাজা রোডস্থ বাসায় বসবাস করতেন।

HostGator Web Hosting