| |

সর্বশেষঃ

ইটভাটায় বিপন্ন জামালপুরের জনজীবন

আপডেটঃ 3:44 pm | November 22, 2020

জামালপুর সংবাদদাতা : জামালপুরের ইটভাটাগুলোতে শুরু হয়েছে ইট তৈরির মৌসুম। ইটের মৌসুমকে ঘিরে পুরাতন অসংখ্য অবৈধ ইটভাটার পরও নতুন অবৈধ ইটভাটা স্থাপন হচ্ছে লোকালয়ে, কৃষিজমিতে, গ্রামগঞ্জ শহর বন্দরের সন্নিকটে, পাহাড়ের পাদদেশে। সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে গড়ে উঠা এসব ইটভাটার অধিকাংশই ছাড়পত্র নেই। অবাধে পোড়ানো হচ্ছে জ্বালানি কাঠ।

এছাড়া আধুনিক প্রযুক্তির পরিবর্তে ব্যবহৃত হচ্ছে ৯৫ থেকে ১২০ ফুট উচ্চতার স্থায়ী চিমনি। কাঠ পোড়ানো ও স্বল্প উচ্চতার ড্রাম চিমনি ব্যবহার করায় ইটভাটাগুলোতে নির্গত হচ্ছে প্রচুর পরিমাণে কালো ধোঁয়া। এতে জনস্বাস্থ্যের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলছে।

ডা. তাজুল ইসলাম বলেন, ইটভাটা সৃষ্ট দূষণে বয়স্ক ও শিশুরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া কালো ধোঁয়ার কারণে মানুষের ফুসফুসের সমস্যা, শ্বাসকষ্ট ও ঠান্ডাজনিত নানা রোগ দেখা দিতে পারে। ইটভাটাসৃষ্ট দূষণ পরিবেশ বিপর্যয়সহ কৃষি উৎপাদন ও ফলমূলের ফলন ক্ষতিগ্রস্ত এবং গাছপালার স্বাভাবিক বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত করছে।

এদিকে, ইটভাটার আগ্রাসনে নষ্ট হচ্ছে তিন ফসলি জমি। অপরিকল্পিত ইটভাটা জমির সর্বনাশ ডেকে আনছে। যা কৃষি নির্ভর দেশের জন্য চরম হুমকিস্বরূপ।

মেলান্দহের চর পলিশা গ্রামের একজন কৃষক বলেন, আমাদের ইটভাটার সঙ্গে লাগানো জমিজমা। মরিচের টাল, সরিষা, আমন ধান কোন আবাদ ভালো হয় না ইটভাটার কালো ধোয়ার প্রভাবে। ভাটা মালিক প্রভাব খাটিয়ে বিঘায় বিঘায় আবাদি জমির টপ সয়েল কেটে নিয়ে জমির উর্বরতা নষ্ট করছে।

মেলান্দহের মালঞ্চের বুরঙ্গা গ্রামের কৃষক আব্দুল আলীম বলেন, কৃষির আবাদ ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি গাছে ফল ধরছে না ইটভাটার কালো ধোঁয়ায় বায়ু দুষণের প্রভাবে।

মানবাধিকারকর্মী ও পরিবেশবিদ জাহাঙ্গীর সেলিম বলেন, যত্রতত্র ইটভাটা স্থাপনের ফলে একদিকে কৃষি জমির ওপর মারাত্মক প্রভাব পড়ছে। অন্যদিকে জীববৈচিত্র্য আজ হুমকির মুখে। দ্রুত অবৈধ ইটভাটাগুলো আইনের আওতায় আনা উচিত।

জেলা প্রশাসক কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলা সদর, ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ, সরিষাবাড়ী ও বকশীগঞ্জে সাতটি উপজেলায় প্রায় ১০৩টি ভাটায় ইট পোড়ানো হচ্ছে। এর মধ্যে জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স রয়েছে জামালপুর সদরের একটি ও সরিষাবাড়ী উপজেলার তিনটি ভাটার। বাকি ভাটাগুলোতে কোনো নিয়মে ইট পোড়ানো হচ্ছে তার সঠিক উত্তর নেই জেলা-উপজেলা প্রশাসনের সংশ্নিষ্ট কোনো কর্মকর্তাদের কাছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, অবৈধ ইটভাটাগুলোর বিরুদ্ধে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

HostGator Web Hosting