| |

Ad

সর্বশেষঃ

ময়মনসিংহে শুরু হলো অত্যাধুনিক যন্ত্রের সাহায্যে কৃষিকাজ

আপডেটঃ ৯:৫৩ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৪, ২০১৬

সোহরাব উদ্দিন খান, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহে শুরু হলো অত্যাধুনিক যন্ত্রের সাহায্যে কৃষিকাজ। কৃষিকাজে আসছে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কৃষি কাজে সংযুক্ত হলো যান্ত্রিক উপায়ে কৃষি সেবা। কৃষি কাজে ধান কাটার মেশিন, ধান মড়াইয়ে মেশিন এর পাশাপাশি বর্তমানে ধান রোপনেও ব্যবহার করা হচ্ছে। দেশের উন্নয়নে এটিও একটি বৃহৎ অংশ ও শক্তি।

শ্রমিক দিয়ে নয়, যন্ত্র দিয়ে রোপন করা হয়েছে ধানের চারা। এতে সাশ্রয় হয়েছে সময় ও অর্থের। কৃষিবান্ধব এমন যন্ত্রটির নাম ‘এসিআই এর রাইস ট্রান্সপ্লান্টার’। এ যন্ত্রটি দিয়ে ময়মনসিংহ জেলা গৌরীপুরের উজান কাশিয়ারচর এলাকায় ৬ একর জমিতে চারা রোপন করা হয়েছে। এসিআই মটরস লিমিটেড এর প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট এক্সিকিউটিভ প্রকৌশলী এ.কে.এম রাইসুল আলম খানের তত্বাবধানে প্রথম পর্যায়ে স্বল্প মুল্যে এ চারা রোপন করা হয়। এ পদ্বতিতে ২ একর জমিতে চারা রোপন করতে মাত্র ৩ ঘন্টা সময় লেগেছে।
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি শক্তি ও যন্ত্র বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো: আশিক-ই- রব্বানী জানান, ‘এসিআই এর রাইস ট্রান্স প্লান্টার’ ব্যবহারের ফলে সময় ও অর্থ দু‘টিই সাশ্রয় হয়। ধানের চারা রোপনের এ যন্ত্রটি ব্যবহার করলে রোপন খরচ ৫০% থেকে ৭৫% কমানো সম্বব হবে। মাত্র ১লিটার পেট্রোলে ২ একর জমি চাষ করা যায়। এটি দিয়ে এক সংগে ৪টি সারিতে চারা রোপন সম্বব। বিভিন্ন জাত ভেদে চারা থেকে চারার দুরত্ব নিয়ন্ত্রন করা যায়।

এছাড়া রাইস প্লান্টার দিয়ে চারা রোপন করলে লাইন সোজা হয়। পরবর্তীতে আগাছা নিংড়ানো, সার ও কৃটনাশক ছিটানো ও ধান কাটা সহজ হয়। এসিআই মটরস লিমিটেডের প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট এক্সিকিউটিভ প্রকৌশলী এ.কে.এম রাইসুল আলম খান দৈনিক সবুজকে জানান, চলিত পদ্বতিতে ২ একর জমিতে ৮ ঘন্টা করে ১৭জন শ্রমিক কাজ করলে ২দিন সময় লাগত। অথচ আমরা মাত্র ৩ ঘন্টায় তা করে দিচ্ছি। এতে করে কৃষকের যেমন টাকা সাশ্রয় হচ্ছে তেমনি সময়ও সাশ্রয় হচ্ছে। পরামর্শক হিসাবে কাজ করছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি শক্তি ও যন্ত্র বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো: আশিক-ই- রব্বানী।

mymensingh Pratidin.com pic -2
দিক নির্দেশনায় রয়েছেন এসিআই মটরস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহা।
বাড়ীর আঙ্গিনায়, উঠানে, ছাদে, এমনকি ভাসমান পানিতেও চারা উৎপাদন করা যায়। প্রচলিত পদ্ধতিতে বীজতলাতে বীজ বপন থেকে জমিতে চারা রোপন করতে ৩০-৩৫দিন সময় লাগে। অথচ ট্রান্স প্লান্টার মেশিন দ্বারা করতে সময় লাগে ২০-২২দিন। এখানে সময় সাশ্রয় হবে ১০দিন। ফলে ১০দিন পুবেই ধান কাটা সম্বব হবে। ফসলের উৎপাদন সময় বাচানোর মাধ্যমে শস্য নিবিরতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

এ প্রযুক্তি সারা দেশে ছড়িয়ে দিলে কৃষক উপকৃত হবে। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয় কৃষির উন্নয়নে সর্বাত্বক ভাবে কাজ করে যাচ্ছে, কৃষক যে কোন প্রয়োজনে কৃষি বিজ্ঞানীদের সহায়তা নিতে পারছে। চারা উৎপাদনের প্রশিক্ষন দেয়া হয়েছে। একই গ্রামে সব কয়টি কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

আরোও পড়ুন...