| |

Ad

সর্বশেষঃ

আগে সেবা পরে রাজনীতি : ইন্টার্ন চিকিৎসকদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেটঃ ৬:২২ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৮, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী : সেবার মানসিকতা না থাকলে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের চিকিৎসা পেশায় না আসার আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

শুক্রবার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) মিলনায়তনে সন্ধানীর কেন্দ্রীয় ৩৬তম ষাণ্মাসিক সভায় এই আহ্বান জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, অ্যাপ্রোন পরলে আগে সেবা, পরে রাজনীতি। মনে রাখতে হবে, চিকিৎসকদের দায়িত্বটাই সবার আগে। আন্দোলনের নামে চিকিৎসাসেবা বন্ধ করে দেয়াটা কোনোভাবেই কাম্য নয়। মানুষকে সেবা করার মধ্যেদিয়েই মানুষের মহত্ব ফুটে উঠে।

সর্বশেষ গত ১৩ ও ১৫ নভেম্বর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের রোগীর স্বজনদের আটকিয়ে মারধর করেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। হাসপাতাল ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে এসব ঘটনায় সরাসরি জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

এর আগেও ঘটেছে এমন ঘটনা। বরাবরই দলীয় প্রভাবে পার পেয়ে যাচ্ছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। এছাড়া সেবা বন্ধ করে আন্দোলনের হুমকি থাকায় কঠোর হচ্ছেনা কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে আতঙ্ক বাড়ছে রোগীর স্বজনদের মধ্যে। এসব ঘটনা বন্ধ না হলে আন্দোলনে যাবার ঘোষণা দিয়েছে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সন্ধানীর প্রতিটি কাজের সহযোগীতা করবে সরকার। সন্ধানীকে আগে অ্যাম্বুলেন্স দিয়েছি ঢাকায়। এবার দিবো রাজশাহীতে। খুব তাড়াতাড়ি শিক্ষানগরী রাজশাহীতে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণের কাজও শুরু হবে। এরই মধ্যে বাইপাসে জমি দেখা হয়েছে। পিডি (প্রকল্প পরিচালক) নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। উপাচার্যও নিয়োগ হবে।

মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশে একসঙ্গে ৬ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিয়ে নজির সৃষ্টি করেছে। সম্প্রতি ১০ হাজার নার্সও নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৬০০ নার্স রাখা হবে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও জেলার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তাই ইসলামের নামে দেশে জঙ্গিবাদ ছড়িয়ে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার চক্রান্ত চলছে। এ দেশে অপরাধ করে কোনো ছাড় পাওয়া যায় না। দেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর ৫ খুনির ফাঁসি হয়েছে। বাকিদের দেশে ফিরিয়ে এনে সাজা কার্যকর করা হবে। যারা জঙ্গিবাদ ছড়াচ্ছেন, তাদেরও বিচার হবে।

সন্ধানীর কেন্দ্রীয় সভাপতি জাহারুল হোসাইন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, বিএমএ ও স্বাচিপের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি তবিবুর রহমান শেখ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ নওশাদ আলী, বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন, সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতির মহাসচিব জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

আরোও পড়ুন...