| |

সর্বশেষঃ

ঝিনাইগাতীতে ব্রীজ ধসে পড়ায় ২০ গ্রামের মানুষের দূর্ভোগ

আপডেটঃ ১১:৫৫ অপরাহ্ণ | জুলাই ২২, ২০১৭

শেরপুর ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ প্রতিদিন : শেরপুরের সীমান্তবর্তী  ঝিনাইগাতী উপজেলার সদর ইউনিয়নের উত্তর পাইকুড়া কোনাগাঁও কাটাখালী খালের উপর নির্মিত প্রায় ২০ গ্রামের চলাচলের একমাত্র ব্রিজটি ধসে পড়ায় ২০ গ্রামের জনসাধারণের জন দূর্ভোগ এখন চরম আকার ধারন করেছে। সরেজমিন ঘুরে ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, বিগত প্রায় ৪০/৪২ বছর পূর্বে ব্রিজটি উত্তর পাইকুড়া কোনাগাঁও কাটাখালী খালের উপর নির্মান করা হয়। গত ৯ বছর পূর্বে পাহাড়ী ঢলের কারণে ব্রিজের ২পাশের সংযোগ স্থল ভেঙ্গে যাওয়ায় এলাকাবাসী বাশ ও কাঠ দ্বারা ব্রিজের সাথে সংযোগ তৈরী করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে আসছিল। গত ২ বছর পূর্বে ব্রিজটি সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়ায় চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে হাজার হাজার গ্রামবাসীরা। উল্লেখ্য ওই রাস্তা দিয়ে ঝিনাইগাতী সদর উপজেলা আসার একমাত্র রাস্তা। উক্ত রাস্তার ব্রীজটি বিধ্বস্ত হওয়ার ফলে প্রায় ২০ গ্রামের লোকজনের চলাচলের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়ায় কান্দুলী, উত্তর কান্দুলী, দক্ষিন কান্দুলী, বালিয়া, বালিয়াচন্ডি কোচনীপাড়া, জগৎপুর, ছোট মালিঝিকান্দা, জড়াকুড়া, উত্তর পাইকুড়া, পাইকুড়া, দড়িকালীনগর গ্রামের লোকজন ৪/৫ কিলোমিটার পথ ঘুরে তাদেরকে পাইকুড়া বাজার হয়ে যাতায়াত করতে হয়। এতে যাতায়াত খরচসহ সময়ের অপচয়ও হচ্ছে ২/৩ গুন। এছাড়াও স্কুল পড়–য়া ছেলে মেয়েরা ওই ভাঙ্গা ব্রিজের পার্শ্বে অস্থায়ী ভাবে তৈরীকৃত বাঁশের সাঁকো উপর দিয়ে জীবনের যুঁকি নিয়ে পাড়াপাড়ের সময় প্রায়ই দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।
এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন চাঁন এর সাথে কথা হলে, উক্ত ব্রীজটি বিধ্বস্ত হওয়ার ফলে হাজার হাজার লোকের দূর্ভোগের স্বীকার হচ্ছে। এছাড়াও কৃষকদের কৃষিপন্য বাজার জাত করা অত্যান্ত দুরূহ ব্যাপার এবং গ্রামবাসীদেরকে দীর্ঘ পথ ঘুরে যাতায়াত করতে হচ্ছে। তাই ২০ গ্রামের মানুষের কথা বিবেচনা করে দ্রুত সেখানে একটি ব্রিজ পূণ: নির্মান করার দাবী জানান ভোক্তভোগী গ্রামবাসী।
ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, উত্তর পাইকুড়া কোনাগাঁও কাটাখালী খালের উপর ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়ায় সাধারণ জনগন ব্যাপক দুর্ভোগের কথা স্বীকার করে বলেন, অতিদ্রুত সেখানে ব্রিজটি নির্মাণ হওয়া প্রয়োজন। উপজেলা এল.জি.ই.ডি’র প্রকৌশলী ফজলুর রহমান এর সাথে কথা হলে তিনি ব্রীজটি পূনঃনির্মাণের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন বলে জানান।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting