| |

সর্বশেষঃ

আপডেটঃ ৩:১০ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৪, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার বিচার বর্তমান সরকারের আমলেই শেষ হবে বলে নিশ্চয়তা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার ভোরে গ্রেনেড হামলায় নিহত আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইভী রহমানের কবরে শ্রদ্ধা জানানো শেষে এ কথা বলেন কাদের।

গ্রেনেড হামলায় আহত হওয়ার তিন দিন পর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা যান প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মিনী আইভী রহমান। তার মৃত্যুর এই দিনটিতে বরাবর আওয়ামী লীগ তার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানায়।

১৩ বছর আগের প্রকাশ্য ওই হামলার বিচার শেষ করা যায়নি এখনও। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে মূল আসামিদেরকে বাঁচাতে সে সময়ের সরকারের নানা ঘটনাপ্রবাহ ফাঁস হওয়ার পর সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৮ সালে নতুন করে তদন্ত হয়। সে সময় ২২ জনকে আসামি করে প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। আর ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর আবার তদন্ত করে মোট ৫২ জনকে আসামি করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ। কিন্তু বর্তমান সরকারের আট বছরেও সেই মামলার মীমাংসা হয়নি বিচারিক আদালতে।

প্রতি বছর এই হামলার বর্ষপূর্তিতে বিচারের প্রসঙ্গটি উঠে এবং রাষ্ট্রপক্ষ দ্রুত বিচার নিষ্পত্তির আশার কথা জানায়। ১৩ বছর পূর্তিতে এবারও রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী সৈয়দ রেজাউর রহমান ২০১৭ সালেই বিচার শেষ হওয়ার আশার কথা জানিয়েছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ওই হামলায় বিএনপি-জামায়াত জড়িত ছিল সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। হামলা পরবর্তী নানা ঘটনায় তা প্রমাণ হয়েছে। আর একই শক্তি বিচারিক আদালতে নানা অযুহাত তৈরি করে মামলাটি পেছানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু তাদের সে চেষ্টা সফল হবে না। বর্তমান সরকারের আমলেই বিচার শেষ হবে।

ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে বিএনপির ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন ভণ্ডুল হয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেন কাদের। তিনি বলেন, ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় হওয়ায় বিএনপি আন্দোলন ও ক্ষমতায় যাওয়ার রঙিন খোয়াব দেখেছিল।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রহমান, আহমদ হোসেন, এনামুল হক শামীম, আবদুস সোবহান গোলাপ, সুজিত রায় নন্দী, রোকেয়া সুলতানা, বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting