| |

Ad

সর্বশেষঃ

অবৈধদের পাশে থাকা দরকার

আপডেটঃ ১:৪২ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৬

মালয়েশিয়া সে দেশে অবস্থানরত ২০ লাখ শ্রমিককে বৈধ করার ঘোষণা দিয়েছে। পাশাপাশি দালালদের খপ্পর থেকে শ্রমিক বা মালিকদের বাঁচানোর জন্য অনলাইনে আবেদন করার সুযোগ দিয়েছে। তবে একই সাথে রেজিস্ট্রেশন ফি বাড়িয়ে দিয়েছে। যদিও মালিক সংগঠন ফি বাড়ানোর প্রতিবাদ জানিয়েছে।

দেশটিতে অবৈধভাবে অবস্থানরত শ্রমিকদের যে সংখ্যা সরকার উল্লেখ করেছে তা সঠিক হলে বলা যায় দেশটিতে বর্তমানে অবৈধ শ্রমিকের সংখ্যা হলো ২০ লাখ। অর্থাৎ সরকারের এই ঘোষণার ফলে ২০ লাখ বিদেশি শ্রমিকের জীবন থেকে এক অনিশ্চয়তার পাথর অপসারিত হতে যাচ্ছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া এই ঘোষণায় অবশ্য বলা হয়নি কোন দেশের কত শ্রমিক সে দেশে অবৈধভাবে অবস্থান করছে এবং এও বলা হয়নি তাদের বর্তমান হাল কী?

আমরা যতদূর জানি দেশটিতে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অবৈধ শ্রমিক রয়েছে। অবৈধ হওয়ায় যাদের একটি বড় অংশ মালিকদের প্রতিষ্ঠানে পালিয়ে থাকে এবং মালিকরা তাদের কম পয়সায় কাজ করিয়ে নেয়। সরকার বৈধতার ঘোষণা দেওয়ার পর এই সব শ্রমিকের বৈধ হওয়া তাই অনেকটাই নির্ভর করছে সে দেশের মালিকদের সদিচ্ছার ওপর। কারণ শ্রমিকরা বৈধ হলে কম পয়সায় নিয়োজিত এই সব শ্রমিককে বেশি বেতনে কাজ করাতে হবে মালিকপক্ষের। এ ছাড়াও আমরা জানি, অবৈধভাবে দেশটিতে ঢোকার কারণে অনেক শ্রমিকই সে দেশের জেলখানায় অমানবিক জীবনযাপন করছে। যাদের অনেকে হয়তো বা বিভিন্ন মেয়াদে জেল খাটছে।

নিশ্চয় দেশটির সরকার এ বিষয়গুলো বিবেচনায় রেখেছে। তবে আমরা মনে করি যেহেতু দেশটিতে বাংলাদেশের লাখ লাখ শ্রমিক রয়েছে এবং অবৈধতার কারণে তারা প্রতিকূল পরিস্থিতির শিকার, সে কারণে এই বৈধকরণ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

আরোও পড়ুন...