| |

Ad

সর্বশেষঃ

সিলেটে মা-ছেলে খুন : রহস্যময়ী তানিয়া গ্রেফতার

আপডেটঃ ২:৩৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৯, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : সিলেট নগরের খারপাড়ায় মা-ছেলে খুনের ঘটনায় গৃহকর্মী রহস্যময়ী তানিয়া বেগম তান্নিকে (২৬) গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার রাত ৩টায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনিভেস্টিগেশনের (পিবিঅাই) একটি দল প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে কুমিল্লার তিতাস থেকে গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআইয়ের সিলেট অঞ্চলের পুলিশ সুপার সারোয়ার জাহান।

তিনি বলেন- প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে কুমিল্লার তিতাস থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে গ্রেফতার প্রসঙ্গে আজ বেলা আড়াউটার দিকে সংবাদ সম্মেলন করা হবে পিবিআইয়ের কার্যালয়ে।

সূত্র জানায়, মা ও ছেলে হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই পলাতক ছিলেন তানিয়া। তাকে গ্রেফতারের জন্য সিলেটসহ বিভিন্ন স্থানে একাধিকবার অভিযান চালায় পুলিশ। এই হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশের পাশাপাশি মামলার রহস্য উদঘাটনের জন্য মাঠে নামে পিবিআই।

অবশেষে হত্যাকাণ্ডের ৮দিনের মাথায় পিবিআইয়ের একটি দল তানিয়াকে গ্রেফতার করে। তানিয়া রোকেয়া বেগমের বিশ্বস্ত সহযোগী ছিলেন। তবে প্রতিবেশীদের কাছে তানিয়াকে ‘কাজের মেয়ে’ পরিচয় দিতেন রোকেয়া। হত্যাকাণ্ডের কয়েকদিন আগে নিহত রোকেয়ার সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয় তানিয়ার। এরপর পাড়ার ক্যাডারদের দিয়ে রোকেয়াকে মারধরের হুমকি দেন তানিয়া।

প্রসঙ্গত, সিলেট নগরের নগরের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের খারপাড়ায় মিতালী ১৫/জে নম্বরের তিনতলা বাড়ির নিচতলায় দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন পার্লার ব্যবসায়ী রোকেয়া বেগম ওরফে শিউলী। ১ এপ্রিল বাড়ির ভেতরে থাকা রোকেয়া বেগমের পাঁচ বছরের মেয়ে রাইসার কান্না ও পচা গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। পরে দুপুরে পুলিশ ওই বাড়িতে গিয়ে রোকেয়া বেগম শিউলী ও তাঁর ছেলে রবিউল ইসলাম রোকনের মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় গত ৪ এপ্রিল রাতে শহরতলির শাহপরান গেইট এলাকা থেকে নাজমুল হোসেন (৩২) নামে একজনকে আটক করা হয়। নাজমুল তানিয়া ও নিহত রোকেয়া বেগমের ঘনিষ্ট বন্ধু।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গত ১ এপ্রিল রাতে নিহত রোকেয়া বেগমের ভাই জাকির হোসেন বাদী হয়ে কয়েকজনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

আরোও পড়ুন...