| |

Ad

সর্বশেষঃ

মনু নদীর পানি বিপদসীমার ওপরে, নতুন ১০ গ্রাম প্লাবিত

আপডেটঃ ৩:২৪ অপরাহ্ণ | জুন ১৪, ২০১৮

বিশেষ সংবাদদাতা : মৌলভীবাজারের মনু নদীর পানি এখনও বইছে বিপদসীমার ওপর দিয়ে। এরই মধ্যে আরও তিন স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছে এবং নতুন করে আরও ১০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এদিকে নতুন করে ১০ গ্রাম প্লাবিত হওয়ায় কুলাউড়া-শমশেরনগর সড়কে পানিতে তলিয়ে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

বুধবার (১৩ জুন) রাতে কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের কলিকোনা ও শিকরা হাজিপুর ইউনিয়নের মন্দিরা এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে সর্বমোট মনু নদের ৭টি স্থানে ভাঙনের খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে মনু প্রতিরক্ষা বাঁধের বিভিন্ন এলাকায় ভাঙনের ফলে নদী তীরের এলাকাগুলো ছাড়িয়ে দূরবর্তী এলাকাগুলোতে পানি ছড়িয়ে যাচ্ছে। ফলে কুলাউড়া-শমশের নগর সংযোগ সড়ক পানিতে তলিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ক্রমাগত পানি বৃদ্ধি ও ভাঙনের ফলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি দেখা দিয়েছে।

পাউবো সূত্রে জানা যায়, সারাদিন মনু নদের পানি বিপদসীমার ১৮০ সেন্টিমিটার উপরে থাকলেও রাত ৯টার পর তা ১৫ সেন্টিমিটার কমে বিপদসীমার ১৬৫ সেন্টিমিটার ওপরে প্রবাহিত হচ্ছে। পাউবোর কর্মকর্তারা বলছেন পানি প্লাবিত হওয়ায় নদীর উচ্চতা কমতে পারে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবা) নির্বাহী প্রকৌশলী রণেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী বলেন, বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। নদের ভাঙন দিয়ে পানি প্রবেশ করে আশপাশ তলিয়ে গেছে। উজানের ঢল কমলে পানির সঠিক হিসাব পাওয়া যাবে। এখন আশপাশে পানি ছড়িয়ে যাওয়াতে নদের উচ্চতা কম দেখাচ্ছে।

আরোও পড়ুন...