| |

সর্বশেষঃ

চিরনিদ্রায় শায়িত গোলাম সারওয়ার

আপডেটঃ ৬:১৬ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৬, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন খ্যাতিমান সাংবাদিক ও দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়।

বাদ জোহর জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে গোলাম সারওয়ারের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে তাকে জানানো হয় শ্রদ্ধা।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় গোলাম সারওয়ারের মরদেহ নেয়া হয় তার প্রিয় কর্মস্থল সমকাল কার্যালয়ে। সেখানে সহকর্মীদের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে পার্শ্ববর্তী বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এরপর সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় বেলা ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সমকাল সম্পাদকের মরদেহ সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। সেখানে বরেণ্য এই সাংবাদিককে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, র‌্যাব মহাপরিচক বেনজির আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আখতারুজ্জামান, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সাম্পাদক জাকির হোসাইনসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষ।

শ্রদ্ধা জানানোর পর সেখান থেকে এই প্রথিতযশা বুদ্ধিজীবী সাংবাদিকের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে। দীর্ঘ কর্মময় জীবনের অনেকটা সময় তিনি কাটিয়েছেন এখানে। সংবাদকর্মীরা সেখানে গোলাম সারওয়ারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

স্বাধীনতা পুরস্কার পাওয়া সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার নিউমোনিয়া ও ফুসফুসের সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরে জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে ইন্তেকাল করেন। মঙ্গলবার রাত ১০টা ৫০ মিনিটে তার মরদেহ দেশে পৌঁছে। বিমানবন্দর থেকেই তার মরদেহ নেয়া হয় উত্তরার বাসায়। সেখান থেকে নেয়া হয় বারডেম হাসপাতালের হিমঘরে।

গোলাম সারওয়ারের মরদেহ গতকাল বুধবার নেয়া হয় তার জন্মস্থান বরিশালের বানারীপাড়ায়। দুপুর ২টা ২৩ মিনিটে মরদেহ নিয়ে ঢাকা থেকে যাওয়া হেলিকপ্টারটি স্থানীয় হেলিপ্যাডে অবতরণ করে। সেখান থেকে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় পৌর শহরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে গোলাম সারওয়ারের বাসভবন ‘সিতারা’য়। বানারীপাড়া সরকারি মডেল ইনস্টিটিউশন মাঠে গোলাম সারওয়ারের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম সারওয়ার মুক্তিযুদ্ধের পর কয়েক মাস এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। জানাজা শেষে তাকে আবার ফিরিয়ে আনা হয় ঢাকায়। বুধবার রাতেও তার মরদেহ রাখা হয় বারডেমের হিমঘরে।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting