| |

Ad

সর্বশেষঃ

‘ট্রাফিক আইন’ সচেতনতায় মাঠে নামবে শিক্ষার্থীরা

আপডেটঃ ১:৩৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৯, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে জনসাধারণের মধ্যে ‘সড়ক নিরাপত্তা’ বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তাই ট্রাফিক আইন সচেতনতায় মাঠে নামবে শিক্ষার্থীরা। তাদের মাধ্যমে ট্রাফিক সিগনাল, ক্লাসে পাঠদানের পাশাপাশি সচেতনতা বাড়ানোসহ ২৪টি কার্যক্রম বাস্তবায়নে আলাদভাবে নির্দেশনা জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।

উভয় নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জনগণের মাঝে সচেতনতা বাড়ানোর মাধ্যমে সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাস ও সড়কে শৃঙ্খলা তৈরিতে বর্তমান সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। সড়ক নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য প্রাথমিক থেকে সবস্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে লিফলেট বিতরণ, শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে অভিভভাবকদের কাছে তা পৌঁছে দিতে বলা হয়েছে। সড়ক আইন সর্ম্পকে উল্লেখিত লিফলেটে উল্লেখিত বিষয়াদির ওপর শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে শিক্ষকের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ধারণা/নির্দেশনা প্রদান করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি ক্লাব-স্কাউটস শিক্ষার্থীর মাধ্যমে অভিভাবকদের মাঝে সচেতনতা তৈরিতে লিফলেট বা প্রচারপত্র তৈরি, স্ব স্ব বিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে সেগুলো বিতরণ, উপজেলা শিক্ষা অফিসার বা সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারের মাধ্যমে নিয়মিত সমাবেশ আয়োজন করা, শিক্ষার্থীদের মধ্যে নিরাপদ সড়ক বিষয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও রচনা প্রতিযোগিতা আয়োজনসহ ২৪টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অবশ্যই বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন জাগো নিউজকে বলেন, শিক্ষার্থীদের মধ্যে সড়ক আইন সর্ম্পকে ধারণা তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে ২৪টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। শিক্ষকদের সহায়তায় শিক্ষার্থীরা তাদের অভিভাবক ও জনসাধারণকে এ বিষয়ে লিফলেট ও ট্রাফিক আইন সর্ম্পকে ধারণা দিবে। মাঠপর্যায়ে অভিভাবক-শিক্ষার্থীসহ সবার মধ্যে সড়ক আইন সর্ম্পকে সচেতনতা বাড়বে। পরবর্তীতে পাঠপুস্তকে সড়ক আইন সর্ম্পকে বিভিন্ন পাঠ্যক্রম অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব গোপাল চন্দ্র ঘোষ বলেন, শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে অভিভাবক ও সাধারণ মানুষকে ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে আমরা এমন উদ্যোগ হাতে নিয়েছি।

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে এমন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এতে করে শিক্ষার্থীরাও সচেতন হবে, পাশাপাশি অভিভাবকরাও সড়ক আইন সম্পর্কে সচেতন হয়ে উঠবেন।

আরোও পড়ুন...