| |

সর্বশেষঃ

আপডেটঃ ৬:৫৫ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ধর্মমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমানকে রাজাকার বলায় ময়মনসিংহ আদালতে মামালা দায়ের হয়েছে। ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ময়মনসিংহ জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক মোস্তাফিজুর রহমান শাহীন বাদী হয়ে মামালাটি দায়ের করেছে।

গত ২৮ আগস্ট নগরীর গাঙ্গিনারপাড়ে মৃত আজাদ শেখের স্ত্রী দিলরুবা আক্তার দিলু ধর্মমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমানকে রাজাকার বলে কটুক্তি করে বক্তব্য রাখে।
দিলরুবা ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সম্পর্কে ব্যাপক কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য রেখে বলেন,” আমার তো মনে হয় তার বাপিই রাজাকার। শেখ হাসিনার বাপকে যে হত্যা করে তার বাপও জড়িত আছে আমার এখনও মনে হয়।” দিলরুবা আরও বলেন, “শেখ মজিবুরকে যে হত্যা করেছে তার পিছেও তার বাপের হাত আছে এটা আমার বিশ্বাস। শেখ মজিবুরকে যেভাবে নির্মমভাবে হত্যা করেছে ঠিক সেভাবে আমার স্বামীকে হত্যা করেছে।”
মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী এড. আব্দুর রহমান আল হোসাইন তাজ বিষয়টি নিশ্চিত বলেন, নিহত যুবলীগ নেতা আজাদ শেখের স্ত্রী দিলরুবা আক্তার দিলু ধর্মমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমানকে রাজাকার বলে কটুক্তি করে বক্তব্য রাখায় তার নামে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ময়মনসিংহ জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক মোস্তাফিজুর রহমান শাহীন বাদী হয়ে আদালতে ৫০০ / ৫০১ ধারায় মানহানি মামলা দায়ের করেছেন।

ময়মনসিংহ অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্টেট ১ নং আমলী আদালত এর বিজ্ঞ ম্যাজিষ্টেট রোজিনা খান মামলাটি আমলে নিয়ে কটুক্তিকারী দিলরুবার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।
সমগ্র মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারনকারী জনতা ফুসে উঠেছে। আসামি দিলরুবা আক্তার দিলুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন। মামলার বাদী শাহীনসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে দিলরুবা আক্তারের গ্রেফতার ও বিচার দাবী করে বলেন তার পিছনে ইন্দনদাতাদের তদন্ত সাপেক্ষ আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।

এ সময় কোট প্রাঙ্গনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ময়মনসিংহ জেলা শাখার আহবায়ক হুমায়ন রেজা সোহাগ, যুগ্ম আহবায়ক রিমন মোঃ জামায়েল সামি, শরিফ আহমেদ, সদস্য সচিব রিয়াদুল ইসলাম রানা, সদর কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক মোঃ করিম আলী মিলন, জেলা কমান্ডের সদস্য দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, আল মামুন।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting