| |

সর্বশেষঃ

অপরাধ প্রমাণ হবে জেনেই বেগম জিয়ার আইনজীবীরা আদালত নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন : আইনমন্ত্রী

আপডেটঃ ৬:১২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : কারাগারের আদালতটি নাটক-সিনেমার আদলে তৈরি উল্লেখ করে বেগম জিয়ার আইনজীবীদের অভিযোগ, বেগম জিয়াকে সাজা দিতেই এই পন্থা বেছে নিয়েছে সরকার। আইনমন্ত্রী বলেছেন, অপরাধ প্রমাণ হবে জেনেই বিচার এড়াতে বেগম জিয়ার আইনজীবীরা আদালত নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

পুরনো কারাগারে আদালত স্থানান্তর নিয়ে চলছে সরকার ও বিএনপির আইনজীবীদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য। বেগম জিয়ার আইনজীবীরা কারাগারে কোর্ট বসানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে মামলার করার কথা ভাবছেন। এরই মধ্যে আদালত স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে আইন সচিবকে ৭২ ঘণ্টা সময় দিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

এমন প্রেক্ষাপটে সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে বৃহস্পতিবার সকালে আইনজীবী সমিতি মিলনায়তে ব্রিফিং করেন বেগম জিয়ার আইনজীবীরা। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ব্যানারে করা এ ব্রিফিংয়ে বেগম জিয়ার আইনজীবীরা,কারাগারের আদালতটি নাটক-সিনেমার আদলে তৈরি উল্লেখ করেন,বলেন- ‘সাজা দিতেই এই পন্থা বেছে নিয়েছে সরকার।’

বেগম জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, নাটক সিনেমায় যেমন দেখানো হয় তেমন একটি আকৃতির কারাগার বানানো হয়েছে। যেনতেনভাবে বিচারকার্য পরিচালনা করে তাকে শাস্তি দেয়ার পায়তারা করছে।

বেগম জিয়ার আইনজীবীদের এমন মন্তব্যের বিষয়টি আইনমন্ত্রীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অপরাধ প্রমাণ হবে জেনেই বিচারের সম্মুখীন হতে ভয় পায় বিএনপি।

আইনমন্ত্রী বলেন, যেখানে আদালত বসানো হয়েছে সেখানে কারো প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ নয়। তারা কীভাবে বিচারকে এড়ানো যায় সেটা চিন্তা করছেন। দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তারা এইকারনেই তারা বিচারের সম্মুখীন হতে চান না।

ক্যামেরা ট্রায়াল সম্পর্কে বিএনপির আইনজীবীরা অজ্ঞ উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী আবারও বলেন,সংবিধান এবং ফৌজদারি আইন মেনেই জিয়ার চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার আদালত স্থানান্তর করা হয়েছে।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting