| |

সর্বশেষঃ

চট্টগ্রামে নিখোঁজ ছাত্রীর গলিত লাশ উদ্ধার

আপডেটঃ ১২:১১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৮

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের হাটহাজারী পৌরসভার ফটিকা গ্রামের শাহজালাল পাড়া এলাকা থেকে নিখোঁজ হওয়ার দুইদিন পর তাসনিম সুলতানা তুহিন (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রীর গলিত লাশ উদ্ধার করেছে মডেল থানা পুলিশ।

রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে ওই এলাকার সালাম ম্যানশন নামে একটি ভবনের চতুর্থ তলার ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ তুহিনের লাশ উদ্ধার করে। সে (তুহিন) ওই ভবনের মালিক উপজেলার গড়দুয়ারা ইউনিয়নের নেয়ামত আলী সারাং বাড়ির আবু তৈয়বের কন্যা এবং হাটহাজারী গার্লস হাইস্কুল এণ্ড কলেজের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী।

রবিবার সন্ধ্যায় পৌর এলাকা থেকে থানা পুলিশ শাহানেওয়াজ মুন্না নামে এক বখাটে যুবককে আটক করে। ওই যুবকের স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত ৯টার দিকে পুলিশ তার (তুহিন) লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের হাতে আটককৃত বখাটে যুবক শাহানেওয়াজ মুন্না একই পৌরসভার চন্দ্রপুর গ্রামের পল্লী চিকিৎসক মোহাম্মদ শাহাজানের পুত্র বলে জানা গেছে।

হাটহাজারী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক বেলাল উদ্দীন জাহাংগীর সাংবাদিকদের জানান, এ বিষয়ে থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি রুজু পর হতে আমরা ঘটনার ক্লু বের করতে বেশ তৎপর ছিলাম। রোববার পৌর এলাকা থেকে মুন্না নামে এক যুবককে আটক করা হলে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক পৌর এলাকার শাহজালাল পাড়ার সালাম ম্যানশনের চতুর্থ তলার একটি ফ্ল্যাটের ড্রয়িং রুমের একটি সোফা সেটের নিচে প্লাটিক মোড়ানো অবস্থায় তুহিনের গলিত লাশটি উদ্ধার করি।

এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড এমনটা দাবি করে তিনি আরও জানান, রোববার এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত শাহানেওয়াজ মুন্না নামে এক বখাটে যুবককে আটক করা হয়। আটককৃত ওই যুবকের স্বীকারোক্তি মূলে ওই ভবনে তল্লাশি করে ওই ছাত্রীর গলিত লাশটি উদ্ধার করা হয়। তবে কেন কী কারণে ওই যুবক এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া ঘটনায় ওই ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting