| |

সর্বশেষঃ

মন্দিরে মন্দিরে প্রতিমা তৈরির ধুম

আপডেটঃ ১:১৫ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

জামালপুর প্রতিনিধি : আসছে সনাতন ধর্মালম্বীদের বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। আশ্বিন মাসের ২৮ তারিখে পূজা শুরু হবে। মন্দিরে মন্দিরে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে প্রতিমা শিল্পীদের। রাতদিন কাজ করায় তাদের দম ফেলানোর ফুসরত নেই। সনাতন ধর্মাবলম্বীরাও পূজা আয়োজনে নিচ্ছেন নানা প্রস্তুতি।

জামালপুর শহরের বকুলতলায় দুর্গাবাড়ী মন্দিরে কথা হয় প্রতিমা শিল্পী স্বাক্ষর তালুকদার(৩০) এবার ৬টা প্রতিমা তৈরির অর্ডার পেয়েছেন।

তিনি জানান, মাটি বাঁশ ও রংয়ের দাম বেড়ে যাওয়ায় প্রতিমা তৈরিতে খরচ পড়ছে বেশি। প্রতিমা তৈরি ছাড়াও মণ্ডপ তৈরিতে ককশিট ও মণ্ডপের ডেকোরেশনের কাজ পেয়েছেন। ৬টি প্রতিমায় ২ লাখ ও মণ্ডপের কাজে আরো ১ লাখ টাকা আয় হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

শ্রী শ্রী দয়াময়ী মন্দিরে প্রতিমা তৈরিরত অবস্থায় কথা বলেন রবীন্দ্র চন্দ্র পাল (৬০)। তিনি ও তার ছেলে লিটন পাল প্রতিমা তৈরীর অর্ডার পেয়ে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থেকে এসেছেন। তারা ১২টি প্রতিমা তৈরির অর্ডার নিয়েছেন। ১২টি প্রতিমা তৈরিতে সাড়ে ৪ লাখ টাকা আয় হবে তাদের।

স্বাক্ষর তালুকদার, লিটন পাল ও রবিন্দ্র চন্দ্র পালের মতো পুরো জেলায় মণ্ডপে মণ্ডপে প্রতিমা শিল্পীরা প্রতিমা তৈরি করছে। প্রতিমা তৈরির মাটির কাজ শেষ পর্যায়ে। আংশিক মাটির কাজ বাকি রয়েছে। পুরোপুরি সম্পন্নের পর রংতুলির আঁচড়ে দেবী দুর্গার মহামায়া রুপ নিবে।

জামালপুর জেলা পুজা উদযাপন কমিটির সাধারন সম্পাদক সির্দ্ধাথ শংকর রায় বলেন, গতবারের তুলনায় এবার দুর্গা পূজার সংখ্যা বেড়েছে। শুধু জামালপুর সদর উপজেলায় ৬৬টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এ পর্যন্ত পুরো জেলায় ২১৬টি দুর্গাপূজার আয়োজন হচ্ছে। পূজার সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting