| |

সর্বশেষঃ

যেকোনো আইন সংশোধন করা যায় : তথ্যমন্ত্রী

আপডেটঃ ৬:৩৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২১, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডিজিটাল জগতে উগ্রবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিস্তার ঠেকাতে সংবাদমাধ্যমকে সরকারের সঙ্গে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

সম্প্রতি পাস হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রয়োজনে সংশোধন হতে পারে- এমন ইংগিত দেন তথ্যমন্ত্রী। বলেন, ‘যে কোনো আইন পরীক্ষা করা যায়, সংশোধন করা যায়।’

রবিবার বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতীয় প্রেস ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

উগ্রবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাকে গণতন্ত্র, গণমাধ্যম এবং সমাজের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি হিসেবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এ সকল সমস্যা মোকাবেলার জন্য আমাদের প্রস্তুত হতে হবে।’

‘উগ্রবাদের হুমকি ডিজিটাল সমাজেও ছড়িয়ে পড়েছে। এর বিরুদ্ধে লড়তে সরকার ও সংবাদমাধ্যমকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

চলতি মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বলেছেন, সাইবার সিকিউরিটি এখন প্রতিটি দেশেই বিরাট সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসসহ নানা ধরনের অপরাধের বিস্তার ঘটছে জিডিটাল মাধ্যমে। সেসব মাথায় রেখেই সরকার ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন করা হয়েছে।

তবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়ার পর থেকে এর বিভিন্ন ধারা নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসছিল সম্পাদক পরিষদসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন। তাদের আপত্তির সুরাহা না করেই গত ১৯ সেপ্টেম্বর সংসদে ওই আইন পাস করা হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আশ্বস্ত করতে পারি, গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে কাজে লাগানোর জন্য এ আইন নয়।’

‘গনমাধ্যম কর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলতে চাই, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে ভয়ের কোনো কারন নেই। কারন এই আইনটি মূলত সাইবার অপরাধীদের ধরার জন্যই করা হয়েছে। এতে সাংবাদিকদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।’

‘নারী সাংবাদিকতার শত্রু সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ’

নারী সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নারীরা আজ গনমাধ্যম অফিসগুলোতে অনেক দৃশ্যমান। একটা সময় নারীরা গনমাধ্যমে কাজ করতে পারতো না। বর্তমানেও গনমাধ্যমের উপর জঙ্গি সংগঠনের একটা থাবা আছে, এতে নারীরাও আক্রান্ত হচ্ছে। নারী সাংবাদিকতার প্রধান শত্রু সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ, এটা তাদের পথের প্রধান বাধা।’

ভাল সাংবাদিক হতে নারীদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণেরর দরকার আছে বলেও মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হকের সভাপতিত্বে কেন্দ্রের উপদেষ্টা সেতারা মূসা, সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা এবং কোষাধ্যক্ষ্য আখতার জাহান মালিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting