| |

সর্বশেষঃ

  • মুজিব বর্ষ

/ কৃষি ও পরিবেশ

বানে ডুবেছে কৃষকের ধান-সবজি-মাছ, ভেসে গেছে স্বপ্ন

July 01, 2020

বিশেষ সংবাদদাতা : উজানের ঢল এবং অতি বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলাসহ জামালপুর ও সিলেটে বন্যা হচ্ছে। এই বন্যার ফলে লাখ লাখ মানুষ যেমন পানিবন্দি হচ্ছে সেই সঙ্গে ডুবে গেছে ফসলি জমি। হঠাৎ বন্যায় কৃষির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ধানের ভালো দামের কারণে এবার বোরো কাটার সঙ্গে সঙ্গে চাষিরা আউশ ধান আবাদ করেছেন। বন্যায় আউশ ধান ছাড়াও আমন বীজতলা, কাউন, চিনা বাদাম, তিল, বেগুন, মরিচ, পটল, শশা, চিচিঙ্গা, ঝিঙে, ঢেঁড়স, কাকরোল ও পেপেসহ সবধরনের সবজির খেত এখন পানির নিচে। হাজার হাজার বিঘা খেতের ফসল ডুবে যাওয়ায় অনেক কৃষক এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এছাড়া অনেকের পুকুর ডুবে লাখ লাখ টাকার মাছ ভেসে গেছে। কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার বল্লভের খাষ ইউনিয়নের সবজি...

টানা ঝড়-বৃষ্টিতে উত্তরাঞ্চলের ধান চাষিদের স্বপ্নভঙ্গ

June 06, 2020

বিশেষ সংবাদদাতা : সুপার সাইক্লোন আম্ফানের পর দফায় দফায় ঝড় ও টানা বৃষ্টিতে উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ অঞ্চলে অনেকে লেট ভ্যারাইটির ধান আবাদ করায় ধান পাকতে দেরি হয়েছে। এ অঞ্চলে ধান কাটার পুরো মৌসুম শুরু হতেই চার দফা ঝড় বয়ে যায়। এতে খেতের পাকা ধান ঝরে মাটিতে পড়ে যায়। এর ওপর টানা বৃষ্টিতে হাজার হাজার একর জমির ধান পানির নিচে ডুবে গেছে। ফলে বোরো ধান নিয়ে উত্তরের কৃষক যে স্বপ্ন দেখেছিল তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। রাজশাহী, নাটোর, বগুড়া, জয়পুরহাট, গাইবান্ধা, রংপুর ও দিনাজপুরে ধানের যে ক্ষতি হয়েছে তার ছায়া জাতীয় উৎপাদনেও পড়বে বলে চাষিদের শঙ্কা। বগুড়ার ধুনট উপজেলার চরপাড়া গ্রামের আদর্শ কৃষক আকিমুদ্দিন শেখ জাগো নিউজকে বলেন, ‘বোরো...

টাঙ্গাইলে ১১০ হেক্টর জমির ধান পানির নিচে

June 02, 2020

টাঙ্গাইল সংবাদদাতা : টাঙ্গাইলের বিভিন্ন এলাকার ১১০ হেক্টর জমির ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। পাকা ধান ঘরে তুলতে না পেরে চিন্তিত কৃষক। জেলার বাসাইল ও মির্জাপুর উপজেলায় গত কয়েক দিনের ভারি বর্ষণে বংশাই নদীর পানি বেড়ে নিম্নাঞ্চলের আবাদী জমির বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে বিপাকে পড়েছেন হাজারও কৃষক। কিছু জমির ধান পুরোটাই তলিয়ে গেছে। আবার কিছু জমির ধান সামান‌্য দেখা যাচ্ছে। বাসাইল উপজেলার বাসুলিয়া, কাঞ্চনপুর, পূর্বপৌলী, মটেশ্বর, পূর্বমটেশ্বর, আগমটেম্বর, সিঙ্গারডাক, যৌতুকী ও মির্জাপুর উপজেলার পাটদিঘী, সুতানরী, বৈন্নাতলীসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়। বাসাইল উপজেলার মটেশ্বর গ্রামের কৃষক নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি প্রায় তিন একর জমি বর্গা...

আম-লিচুর ক্রেতা খুঁজে পাচ্ছেন না বাগান মালিকরা

June 01, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক : আম-লিচু বাজারজাতকরণে ক্রেতা খুঁজছেন বাগানের মালিকরা, কিন্তু পাচ্ছেন না। আম-লিচুসহ মৌসুমি ফল বাজারজাতকরণের আশ্বাস দিলেও এখন পর্যন্ত সরকারের কেউ তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। কৃষিমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ‘ফুড ফর ন্যাশন’ উদ্বোধন করা হলেও নিশ্চিত করা যায়নি কৃষিপণ্যের সঠিক বিপণন ও ন্যায্যমূল্য। অথচ চাহিদা মোতাবেক সহজলভ্যতা তৈরি এবং জরুরি অবস্থায় ফুড সাপ্লাই চেইন অব্যাহত রাখতেই বাংলাদেশের প্রথম উন্মুক্ত কৃষি মার্কেট অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ‘ফুড ফর ন্যাশন’ চালু করা হয়েছিল। এর মাধ্যমেই সরকার আম ও লিচুর বাজারজাতকরণের সাপ্লাই চেন ঠিক রাখতে চেয়েছিল। এতে আম ও লিচু চাষিদের চিন্তা করতে হবে না বলে সরকার মনে করলেও উৎপাদিত পণ্য...

আমের কেজি ৫০ পয়সা!

May 22, 2020

বিশষ সংবাদদাতা : গোপালভোগ আম পাড়া শুরু হওয়ার কথা ছিল বুধবার (২০ মে)। কিন্তু আবহাওয়া খারাপের কারণে রোদ ঝলমলে দিনের অপেক্ষায় ছিলেন রাজাশাহীর চাষিরা। কিন্তু সে অপেক্ষাই যেন কাল হলো। আম্পানের মূল ঝাপ্টাটাই গেছে আমের ওপর দিয়ে। এতে অনেক চাষিই এখন নিঃস্ব। ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে রাজশাহীর বাঘা ও চারঘাট উপজেলায় ঝরে পড়া আম বিক্রি হচ্ছে ৫০ পয়সা কেজি দরে। তারপরও ক্রেতা পাচ্ছেন না আম চাষিরা। এদিকে, চাষিদের কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আম কিনে ত্রাণ হিসেবে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে জেলা প্রশাসন। রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরীফুল হক বলেন, ‘ঝরে পড়া আম ব্যবসায়ীরা কেনার পরও যদি অবিক্রিত থেকে যায় তা জেলা প্রশাসন কিনে করোনা ত্রাণ তহবিলে...

করোনায় বাজারজাতকরণ নিয়ে শঙ্কায় আম ও লিচুচাষিরা

May 17, 2020

বিশেষ সংবাদদাতা : মধুমাস জ্যৈষ্ঠের মিষ্টিমধু আম এবার মানুষের পাতে যাবে না গাছে পচবে-এ নিয়ে শঙ্কা এখনও কাটেনি। আমচাষি, ব্যবসায়ী, ফড়িয়া, বিক্রেতা সবার চিন্তা একটাই-ক্রেতা বা ভোক্তার কাছে ঠিকমতো আম পৌঁছানো যাবে তো? চাষিরা বলছেন, করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। এমতাবস্থায় আমের বাজারজাতকরণ নিয়ে শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। শনিবার (১৬ মে) এ বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী তার মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন। রাজশাহী, চাঁপাইনবানগঞ্জ, নাটোর, রংপুর, দিনাজপুর, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গাসহ সারাদেশের আম ও লিচু কীভাবে বাজারজাতকরণ করা যায় সে বিষয়ে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক বলেছেন, আম ও লিচু ভোক্তার কাছে পৌঁছানোর...