| |

সর্বশেষঃ

/ কৃষি ও পরিবেশ

আম মুকুলের ঘ্রাণে সুরভিত টাঙ্গাইলের আকাশ-বাতাস

মার্চ ০৪, ২০১৯

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল : পথ-ঘাট, মাঠ-প্রান্তর, বাসা-বাড়ি, অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মন্দির যেখানেই চোখ পড়বে দৃষ্টি সড়ানো যাবেনা থোকা থোকা আমের মুকুলের মনকাড়া সৌন্দর্য্য থেকে, আর মন মাতাল করা আমের মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণে বিমোহিত-মুগ্ধ হবেই মন। আম মুকুলের ঘ্রাণে সুরভিত টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সমস্ত আকাশ-বাতাস। মন যেন এখনই মধুমাস জৈষ্ঠের অপেক্ষায় পাগলপারা। জানা যায়, উপজেলার প্রতিটি সর্বত্র এলাকাজুড়ে এখন গাছে গাছে শুধু আমের মুকুল আর মুকুল। মুকুলের ভারে যেন নুয়ে পড়ছে প্রতিটি আম গাছ। আর মৌমাছিরা আসতে শুরু করেছে মধু আহরণে। রঙ্গিণ ফুলের সমারোহে যেমন সেঁজেছে প্রকৃতি তেমনি বর্ণিল নতুন সাঁজে সেঁজেছে কালিহাতী উপজেলার সকল আম বাগানগুলো। ভরপুর...

বাড়ল আমন সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা

ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি বছর আমন মৌসুমে এ পর্যন্ত অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে ৫ লাখ ৬৫ হাজার টন আমন চাল সংগ্রহ করেছে সরকার। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ৬ লাখ টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও সময় শেষ হওয়ার ২০ দিন আগে তা প্রায় পূরণ হয়ে গেছে। এ জন্য লক্ষ্যমাত্রা আরও এক লাখ টন বাড়ানো হয়েছে। এর আগে গত ১৮ নভেম্বর খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির (এফপিএমসি) সভায় অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে প্রতি কেজি ৩৬ টাকা দরে ৬ লাখ টন আমন চাল সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গত ১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া আমন চাল সংগ্রহ কর্মসূচি চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। সরকারি চাল সাধারণত চুক্তির মাধ্যমে মিল মালিকদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়। খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ ইউনিটের গত বৃহস্পতিবারের...

ফুলপুরে সেচ পাম্প নিয়ে দ্বন্দ্ব পানি নিয়ে সংশয়ে কৃষক

জানুয়ারি ৩০, ২০১৯

ফুলপুর প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নে পাইস্কা গ্রামে ডিপ টিউবওয়েলের মালিকানার দায়িত্ব নিয়ে দ্বন্দ্ব। ফলে শতাধিক একর জমির বোর চাষ নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে কৃষকদের মধ্যে। জানা যায়, একই গ্রামের মৃত নইমউদ্দিন তালুকদারের ছেলে মোশারফ হোসেন লিখন এবং মৃত শামছুদ্দিন তালুকদারের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক মঞ্জুর মধ্যে এ দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। তবে খুব শিগ্রই দুই পক্ষকে ডেকে সমাধানের কথা জানিয়েছেন বিআরডিবি। স্থানীয় গোলাম শাহীন তালুকদার বলেন, এই পাম্প আগে মঞ্জু তালুকদার চালাত কিন্তু এখন লিখন তালুকদার এটি চালাচ্ছেন। কিন্তু হঠাৎ করে মঞ্জু তালুকদার লোকজন নিয়ে এসে পাম্প ঘরে তালা দিয়ে দেয়। তিনদিন পর কৃষকরা ক্ষুদ্ধ...

গৌরীপুরে চলতি বোর মৌসুমে ২০ হাজার ৬৯০ হেক্টর জমি আবাদে ব্যস্ত কৃষকরা

জানুয়ারি ২৩, ২০১৯

শামীম খান, গৌরীপুর ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় চলতি বোর মৌসুমে ২০ হাজার ৬শ ৯০ হেক্টর জমিতে বোর ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ উপজেলার পৌরসভাসহ ১০টি ইউনিয়নে বোর আবাদে ধূম পড়েছে। স্থানীয় কৃষকরা বর্তমানে বোর চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন। স্থানীয় কৃষকরা জানান, গৌরীপুর উপজেলায় প্রতিবছর বোর ধানের বাম্পার ফলন হয়ে থাকে। এ মৌসুমে শৈত্যপ্রবাহ না থাকায় বোর ধানের চারা সুস্থ ও সবল হয়েছে। কৃষকরাও এরমধ্যে জমি তৈরী করে বোর ধানের চারা রোপনে ব্যস্ত রয়েছেন। যদি কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না ঘটে তাহলে এবছরও বোর ধানের বাম্পার ফলনের আশা করছেন তারা। উপজেলা কৃষি অফিসার লুৎফুন্নাহার জানান, চলতি বোর মৌসুমে এ উপজেলা ২০ হাজার ৬৯০...

জামালপুরে তুলা চাষ করে লাভবান হচ্ছেন চরাঞ্চলের কৃষকরা

জানুয়ারি ২১, ২০১৯

জামালপুর সংবাদদাতা, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : জামালপুর জেলার বিস্তীর্ণ চরভূমিতে এবার ব্যাপক তুলা চাষ হয়েছে। এজন্য পিছিয়ে থাকা চরাঞ্চলের কৃষকের মাঝে আশার আলো দেখা দিয়েছে। এক সময়ের প্রায় অনাবাদি এবং পতিত জমিতে তুলা চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন কৃষকরা। এখানকার কৃষকদের মাঝে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে তুলা চাষ। কৃষকদের এখন ব্যস্ত সময় কাটছে ক্ষেত থেকে তুলা সংগ্রহের কাজে। জামালপুর জেলা তুলা উন্নয়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন জানান, জামালপুর সদর উপজেলার মধ্য পাথালিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ পাথালিয়া, চন্দ্রা, পিয়ারপুর, সেনের চর, বানারের পাড় এলাকা এবং ইসলামপুর উপজেলার পিরিজপুর, ডেফলার চর ও শভুপুর এলাকায় এবার ব্যাপক তুলার চাষ হয়েছে। শুভ্র তুলায় ভরে উঠেছে...

নেত্রকোনার মগড়া ও ধলাই নদীতে ধান চাষ

জানুয়ারি ২১, ২০১৯

নেত্রকোনা প্রতিনিধি : নেত্রকোনার মদন উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে গেছে মগড়া নদী। একসময় খরস্রোত থাকলেও এখন পানিও নেই বললেই চলে। উজান থেকে নেমে আসা ঢলে পলি-বালি জমে নদীটি এখন তার অস্তিত্ব হারাতে বসেছে। বেদখল হচ্ছে নদীর বিভিন্ন অংশ। নদীর কোনও কোনও অংশে ফসলের চারা রোপন করা হয়েছে। জানা গেছে, ধলাই নদীর একটি শাখা ফতেপুর ফেরিঘাটের মগড়া নদীর মোহনা থেকে শুরু করে রামগোপালপুর, ছত্রকোনা, বিন্নী হয়ে ৪ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে আবার দড়িবিন্নী গ্রামের পাশে মগড়া নদীতে মিশেছে। অপর শাখাটি দেওয়ান পাড়ার সামনে দিয়ে আলমশ্রী, রোদ্রশ্রী, মাখনা, শিবপাশা, বাড়ৈউড়া, তিয়শ্রী, বাস্তা, চন্দ্রতলা, রাজতলা, বাঁশরী হয়ে প্রায় ৩০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে কৈজানি নদীতে মিশেছে। এই দুটি শাখা...