| |

সর্বশেষঃ

/ লাইফস্টাইল

যেমন হবে শীতের মেকআপ

ডিসেম্বর ২২, ২০১৫

লাইফস্টাইল ডেস্ক  : সাজতে ভালোবাসেন না এমন নারী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। আর সাজের জন্য উৎকৃষ্ট ঋতু হলো শীত। কারণ এই সময়ে মেকআপ গলে সাজ নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে না। সাজের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পর্ব হচ্ছে মেকআপ। তাই চলুন জেনে নিই, কেমন হবে শীতের সময়ের মেকআপ- চেহারায় বাড়তি উজ্জ্বলতা আনার জন্য মুখত্বক পরিষ্কার করে গোলাপজলে অল্প একটু তুলা ভিজিয়ে সারা মুখে বুলিয়ে নিন। তারপর আগের মতো বেইজ তৈরি করুন। ফাউন্ডেশনের উপরে ফেস পাউডার লাগান। পাফ দিয়ে বাড়তি পাউডার ঝেড়ে ফেলুন। জমকালো সাজের মূলমন্ত্র হলো খুব সুন্দরভাবে চোখ সাজানো। শীতের রাতে আইশেড হিসেবে আদর্শ হলো বাদামি বা সোনালি শেডের রঙগুলো। একসঙ্গে অ্যাকোয়া ব্লু ও গ্রে আইশ্যাডোও মিলিয়ে নিতে পারেন। হাইলাইটার...

শীতে ভাপা পিঠা

ডিসেম্বর ২১, ২০১৫

 লাইফস্টাইল ডেস্ক : গ্রাম-বাংলায় শীতের সকালে পিঠা খাওয়ার ধুম পড়ে। চুলার পাশে বসে গরম গরম ভাপা পিঠা খাওয়ার স্বাদই আলাদা। শহরে চুলার পাশে বসে পিঠা খাওয়ার এই স্বাদ না পাওয়া গেলেও বিকেলে গরম গরম পিঠা তো অন্তত খাওয়া যায়। পিঠা তৈরিতে যা লাগবে সিদ্ধ চালের গুড়া ২ কাপ, ভেঙে নেওয়া খেজুরের গুড় ১ কাপ, কোরানো নারিকেল ১ কাপ, লবণ প্রয়োজন মতো। যদি ঝাল পিঠা খেতে চান তবে— ধনেপাতা, কাঁচামরিচ ও গাজর কুচি করে দিতে পারেন। প্রণালী চালের গুড়িতে লবণ ও হালকা পানি ছিটিয়ে মেখে নিতে হবে। যেন দলা না বাঁধে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এবার চালনিতে ভেজা চালের গুড়া চেলে নিন। এতে চালের গুড়া ঝুরঝুরে হবে। একটি বড় হাঁড়িতে গরম পানি বসিয়ে মুখ ছিদ্র ঢাকনা বসিয়ে আটা দিয়ে আটকে দিন।...

সাজে থাকুক লাল-সবুজ

ডিসেম্বর ১৬, ২০১৫

লাইফস্টাইল ডেস্ক : অনেক দাম দিয়ে কেনা আমাদের স্বাধীনতা, লাল-সবুজ পতাকা। স্বাধীনতা দিবস আমাদের গৌরবের মাস। আর এই গৌরবের রং লাল-সবুজ আমরা ধারণ করি সাজসজ্জাতেও। তাইতো দেশি ফ্যাশন হাউসগুলোতে থাকে লাল-সবুজের আধিক্য। শাড়ি, পাঞ্জাবি, শার্ট, কুর্তা, ফতুয়া, স্কার্টে আনা হয় বিজয়ের আমেজ। -নারীরা পোশাকের ক্ষেত্রে পরতে পারেন লম্বা হাতার ব্লাউজের সঙ্গে লাল পাড়ওয়ালা সবুজ শাড়ি। অথবা সবুজ পাড়ওয়ালা লাল শাড়ি। এ ক্ষেত্রে জামদানি, সুতি বা খাদি কাপড়ের শাড়ি পরতে পারেন। যারা এক রঙের শাড়ি পরবেন তারা লাল-সবুজের সংমিশ্রণে ব্লাউজ পরুন। প্রয়োজনে ব্লাউজের হাতায় লেস লাগিয়ে নিন। দেখতে আরও সুন্দর লাগবে। -যারা শাড়ি পরতে চান না তারা লাল-সবুজ সালোয়ার-কামিজ পরতে পারেন।...

প্রাকৃতিক খাবারেই উপভোগ করুন দাম্পত্য জীবন

ডিসেম্বর ০৮, ২০১৫

ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডেস্ক : বিয়ের আগে ও পরে অনেকেই শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগেন। এই বিষয়ে পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাবে নিজেকে শারীরিক সম্পর্কের অযোগ্যও ভাবেন। ফলে অনেকেই বিয়ের আগে থেকেই নিজেকে তৈরি করতে ভুল চিকিৎসা পদ্ধতি গ্রহণ করেন। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে, সহজলভ্য প্রাকৃতিক কিছু খাবার আছে যা আপনার শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারে সামগ্রিক দুশ্চিন্তা দূর করে দাম্পত্য জীবনকে সুখময় ও দীর্ঘায়িত করবে। তবে দাম্পত্য সুখের জন্য সঙ্গীর সঙ্গে পর্যাপ্ত সময় ব্যয় করাও উচিত। আপ্রোডিসিয়াক বা কামোদ্দীপক (গ্রিক শব্দ অ্যাপ্রোডিট- গ্রিসের ভালোবাসার দেবতা) খাবার কামানুভূতি জাগায় এবং নারী-পুরুষের যৌন গ্রন্থিগুলো উদ্দীপ্ত করে দাম্পত্য জীবনকে মধুময়...

সুখী দাম্পত্যের ১১ টিপস

ডিসেম্বর ০৮, ২০১৫

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সুখী দাম্পত্য জীবন সকলেই চায়। কিন্তু চাইলেই তো আর জীবনে সুখ পাওয়া যায় না। সুখী দাম্পত্য জীবন পেতে গেলে তার কতগুলি শর্ত মেনে চলতে হয়। এই শর্তগুলি মানলেই জীবন হয়ে ওঠে আনন্দময়। এক সংসারে থাকতে গেলে হাতা আর খুন্তির মধ্যে কিছু ঠোকা ঠুকি তো লাগবেই। কিন্তু তা বলে একসঙ্গে থাকব না বললে কীভাবে চলবে। ছোট ছোট কয়েকটি টিপস অনুসরণ করলেই আনন্দময় হয়ে ওঠবে দাম্পত্য জীবন। রাগকে সঙ্গে করে বিছানায় যাবেন না : মাথা গরম তো সকলেরই হয়। কিন্তু তাই বলে এক মুখ রাগ নিয়ে বিছানায় গেলে কখনোই সুখের দেখা পাবেন না। তাই বিছানায় যাওয়ার আগেই নিজের রাগকে নিয়ন্ত্রণ করে তবেই বিছানায় যান। একে অপরকে চিনুন : বিয়ের ক্ষেত্রে একে ওপরকে চেনাটা খুবই জরুরি। মতানৈক্য...

সন্তানকে কখনই যা বলবেন না

ডিসেম্বর ০৭, ২০১৫

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সন্তানের সুখের জন্য পিতামাতা সবই করতে পারেন। সন্তান নিয়ে তাদের চিন্তার শেষ নেই। তবে ভালো অভিভাবক হওয়া সত্ত্বেও গর্বিত পিতামাতা হওয়া, কিন্তু বেশ কঠিন। অনেক সময় পিতামাতা রাগান্বিত হয়ে খারাপ কথা বলে ফেলেন। যা সন্তানের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তাই টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে ৯টি অসংবেদনশীল বিষয় সন্তানকে বলা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। তোমার বয়সে অনেক বেশি দায়িত্বশীল ছিলাম উদাহরণ হিসেবে পিতামাতা অনেক সময়ই নিজেদের সঙ্গে তুলনা করে সন্তানকে বলেন, তোমার বয়সে আমি অনেক বেশি দায়িত্বশীল ছিলাম। এটিই সবচেয়ে বড় ভুল। আপনি কখনো ভেবে দেখেছেন, আপনি যখন ছোট ছিলেন তখন আপনার বাবা-মা আপনাকে নিয়ে কত যন্ত্রণা ভোগ করেছেন?...