| |

সর্বশেষঃ

/ বিশেষ সংবাদ

নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ এড়াতে শক্ত অবস্থানে সরকার

ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিদেশি রাষ্ট্র যাতে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপের চেষ্টা করতে না পারে সেজন্য আগে থেকেই শক্ত অবস্থান নিয়েছে সরকার। এ কারণে নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন নিয়ে কয়েকটি দেশের কূটনীতিকরা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চাইলে সরকার অনুমতি দেয়নি। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও সরকার সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কূটনীতিকদের যে কোনো তৎপরতা থেকে দূরে রাখতে চায় সরকার। নির্বাচন নিয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের তৎপরতা ও মতামত অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বলে সরকার ও আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকরা মনে করেন। এখন থেকেই এই হস্তক্ষেপ নিয়ন্ত্রণ না করলে ভবিষ্যতে এর প্রবণতা আরও বাড়বে বলেও মনে করেন তারা। এ কারণেই সরকার...

আসছে নতুন বই : চলছে ক্যাটালগ সংগ্রহ

ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : গ্রন্থমেলা তার চিরায়ত রূপ পেয়েছে শুক্রবার। সেই রেশে কিছুটা ভাটা পড়লেও শনিবার মেলার চতুর্থ দিনটি একেবারে মন্দ কাটেনি। প্রকাশনাগুলো এরই মধ্যে তাদের নতুন বই মেলায় নিয়ে এসেছে। তাই পাঠকদের চোখও এখন প্রিয় লেখকের নতুন বইয়ের দিকে। নতুন বইয়ের আগমনের সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়ে গেছে এ বছরের ক্যাটালগ সংগ্রহের ধুম। বিক্রিও চলছে সমান তালে। বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সকাল থেকেই মানুষের পদচারণা দেখা যায়। সকালে ছিল শিশুপ্রহর। মেলা প্রাঙ্গণ পায় মুখরতা শিশুদের কলকাকলিতে। আর বিকালে বইপ্রেমীরা স্টলে স্টলে ঘুরে খোঁজ নেন নতুন বইয়ের। মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে জানা যায়, এরই মধ্যে পাঠকপ্রিয় অনেক লেখকের বই মেলায় এসেছে। আগামী প্রকাশনী...

ভৈরব-কিশোরগঞ্জ সড়কে বেইলি সেতু যেন মৃত্যুকূপ !

ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৭

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : দীর্ঘদিন মেরামত না করায় কুলিয়ারচর উপজেলা সদরের প্রধান সড়কের বেইলি সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এরপরও সেতুটির ওপর দিয়ে যানবাহন পারাপার হচ্ছে। ফলে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। বিভিন্ন পত্রপত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা যায় সেতুটি দাড়িয়াকান্দি-কুলিয়ারচর সড়কে কুলিয়ারচর পৌর শহরের ভাটি দোয়ারিয়া এলাকায় অবস্থিত। সেতুটির অধিকাংশ পাটাতনের জোড়া খুলে গেছে। নিচ দিয়ে খুলে গেছে নাট-বল্টু। ফলে গাড়ি পারাপারের সময় বেশি শব্দ হয় এবং সেতু কেঁপে ওঠে। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক থেকে উপজেলা সদরে ঢোকার একমাত্র সড়কে দুই যুগ আগে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। অল্প সময়ের মধ্যে পাকা সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা থাকলেও তা করা হয়নি।...

নিভে গেল সংসদের উজ্জ্বল নক্ষত্র

ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : সংবিধানের বিরোধিতা করেছিলেন প্রতিষ্ঠাকালে। তবুও তিনি সংবিধান বিশেষজ্ঞ। তার বাকপটুতার সম্বলই ছিল সংবিধান। সংবিধানের ওপর এমন দখলদারিত্ব আর কোনো রাজনীতিবিদের ছিল কি না, তা মেলানো ভার। সংবিধান সংক্রান্ত বিষয়ে তার দারস্থ হতে হয়েছে খোদ স্পিকারকেও। সংসদ বসেছে অথচ তিনি নেই, এ যেন বাতিঘরে অন্ধকার। কথার পরতে পরতে আনন্দবার্তা। তর্ক, যুক্তি, সমাধান সবই মিলেছে তার বক্তৃতায়। তিনি দাঁড়ালেই নীরবতা নেমে আসত সংসদে। শুধু শোনার জন্যই নয়, শেখার জন্যও অন্য সাংসদের কাছে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ছিলেন মহাগুরু। সরকারে থেকেও যেমন বাচনভঙ্গিতে বিশেষ পারদর্শিতা দেখিয়েছেন, বিরোধী দলে থেকেও ঠিক তাই। আপন মহীমায় আলো ছড়িয়েছেন সংসদের বাইরেও। বর্ষীয়ান...

জাতি তার অবদান চিরকাল স্মরণ করবে

ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মৃত্যুতে বাংলাদেশের রাজনীতির একটি বড় অধ্যায় হারিয়ে গেলো। সংসদ হারালো অভিজ্ঞ ও বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ানকে। সংসদীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় তিনি বিপুল কাজ করেছেন। জাতি তার অবদানকে চিরকাল স্মরণ করবে। আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা সকালে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জিগাতলার বাসায় বাসসকে এভাবেই প্রতিক্রিয়া জানান। তারা বলেন, দেশের রাজনীতিতে তিনি ছিলেন এক মেধাবী ব্যক্তিত্ব। তার বাচনভঙ্গি, যুক্তি-তর্ক ছিলো সবার জন্য অনুকরণীয়। আজ রোববার সকাল ৯টার দিকে ধানমন্ডির ঝিগাতলার নিজ বাসভবনে অ্যাম্বুলেন্সে করে তার মরদেহ আনা হয়। তার মৃত্যুর সংবাদ রাজধানীতে ছড়িয়ে পড়লে...

গ্রেনেড হামলা থেকে রক্ষা, রোগে পরাভূত সুরঞ্জিত

ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুইবার গ্রেনেড হামলার শিকার হয়েও প্রাণে বেঁচে গিয়েছিলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। তবে পারলেন না রোগ থেকে। কয়েক বছরের চিকিৎসাকে ব্যর্থ করে দিয়ে রবিবার ভোরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি। রক্তে হিমোগ্লোবিন স্বল্পতাজনিত অসুস্থতা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন সুরঞ্জিত। শুক্রবার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ল্যাব এইডে ভর্তি করা হয়। কয়েক মাস আগে তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত বলে খবরও প্রকাশ হয়। পরে সুরঞ্জিত নিজেই জানিয়েছিলেন, তার রোগটা ক্যানসার নয়। ইতোমধ্যে তিনি আমেরিকায়ও চিকিৎসা নিয়েছেন। ছাত্র জীবন থেকেই সাধারণের অধিকারের পক্ষে লড়াই করে গেছেন সুরঞ্জিত। সাম্যবাদের আদর্শে দীক্ষিত হন তিনি, শুরু করেন বামপন্থি রাজনীতি।...