সংবাদ শিরোনাম

 

 

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন- উস্কানিমূলক, উশৃংখল কর্মকান্ড ও তান্ডব চালিয়ে বিএনপি আন্দোলনে সফল হতে পারবেনা। অহেতুক সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে আন্দোলনের নামে বিএনপি পুলিশের উপর হামলা চালাচ্ছে। আন্দোলনের নামে বিএনপি সহিংসতা করলে বিএনপিকে রাজপথেই মোকাবিলা করা হবে। বিএনপি অগনতান্ত্রিক উপায়ে কোন আন্দোলন করে মানুষকে ভোগান্তিতে ফেললে তা মোকাবিলা করার জন্য সর্বদা আওয়ামী লীগের নেতারা প্রস্তুত আছে।

মন্ত্রী সোমবার সকালে ময়মনসিংহ নগরীর তালতলায় বিএডিসি ভবন ও ট্রেনিং সেন্টারের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

 

এসময় মন্ত্রী আরো বলেন, কৃত্তিম সংকট সৃষ্টি করে যারা বাজারে পণ্যের দাম বৃদ্ধি করে তাদের আওতায় আনা হবে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকারের কৃষি, বানিজ্য, খাদ্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয় সমন্বিতভাবে কাজ করছে।

 

 

 

 

 

এমনকি প্রধানমন্ত্রী নিজেও এবিষয়ে মনিটরিং করেন। আমরা আমাদের সাধ্যমতো বাজার নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করছি। এছাড়াও আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে কাজ করছে সরকার। সরবরাহ ও চাহিদার উপর ভিত্তি করে সরকার নির্দিষ্ট দাম নির্ধারণ না করে বাজার মনিটরিংয়ের মাধ্যমে চালের দাম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। করোনা মহামারি ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারনে মানুষ কিছুটা সংকটে আছে। এই সংকট মোকাবেলায় সরকার টিসিবি ও ওএমএস সহ নানা খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

 

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, হঠাৎ করে দাম বাড়িয়ে মুনাফা করার চেষ্টা করছে তাদের চিহ্নিত করে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

এসময় কৃষি সচিব মোঃ সায়েদুল ইসলাম, বিএডিসি’র চেয়ারম্যান(গ্রেড-১) এ এফ এম হায়াতুল্লাহ, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, পুলিশ সুপার মোঃ মাছুম আহম্মদ ভুঞা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. জহিরুল হক, সাধারন সম্পাদক এড. মোজাজ্জেম হোসেন বাবুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

এরপর ময়মনসিংহ নগরীর টাউন হল তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ‘বিদ্যমান শস্য বিন্যাসে তৈল ফসলের অন্তর্ভুক্তি এবং ধান ফসলের অধিক ফলনশীল জাত সমূহের উৎপাদন বৃদ্ধি শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সভায় যোগ দেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

 

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম