সংবাদ শিরোনাম

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের মানোন্নয়ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে গরমিল থাকায় পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) অন্য সব বিভাগের মতো তাদের পরীক্ষা শুরু হয় সকাল ৯টায়। কিন্তু পরীক্ষায় বসে তারা দেখে মানবণ্টনের সঙ্গে প্রশ্নের কোনও মিল নেই। এক ঘণ্টা পর জানানো হয় তাদের পরীক্ষা স্থগিত।

 

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সাত কলেজের সমন্বয়ক ও ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক সুপ্রিয়া ভট্ট্যাচার্য এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাঠানো দর্শন বিভাগের নন-মেজর ইংরেজি পরীক্ষার প্রশ্ন নতুন সিলেবাসের আলোকে করা হয়েছে। আর আজ যারা মানোন্নয়ন পরীক্ষা দিচ্ছে, তাদের ইংরেজি প্রশ্ন পুরোনো সিলেবাসের আলোকে হওয়ার কথা। পরীক্ষা শুরুর পর শিক্ষার্থীরা বিষয়টি নজরে আনলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে কেবল মানোন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

 

 

পরবর্তীতে বিষয়টি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সমন্বয় করা হবে। বাকি অন্যান্য বিভাগের পরীক্ষা যথারীতি সম্পন্ন হচ্ছে বলে জানান অধ্যক্ষ।

 

জানা যায়, প্রশ্নে ১০০ মার্কের পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও প্রশ্নে ছিল ৭৫ মার্ক। মানোন্নয়ন পরীক্ষার্থীরা ছিলেন পুরোনো সিলেবাসের শিক্ষার্থী, প্রশ্ন হয়েছে নতুন সিলেবাসে। তাই শুধু মানোন্নয়ন পরীক্ষা স্থগিত করে বাকিদের পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় সরকারি সাত কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হয়ে চলে ১টা পর্যন্ত। এতে সাত কলেজের অনার্সের দ্বিতীয় বর্ষের বিভিন্ন বিভাগের নিয়মিত, অনিয়মিত ও মানোন্নয়ন পরীক্ষার্থীরা অংশ নেন।

 

 

 

রাজধানীর ৭টি কেন্দ্রে একযোগে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কেন্দ্রগুলো হলো—ঢাকা কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০১), ইডেন মহিলা কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০২), বেগম বদরুন্নেছা সরকারি মহিলা কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০৩), কবি নজরুল সরকারি কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০৪), সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০৫), সরকারি বাঙলা কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০৬) ও সরকারি তিতুমীর কলেজ (কেন্দ্রের কোড-১০৭)।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম