সংবাদ শিরোনাম

 

পদ্মা সেতু (উত্তর) পদ্মা সেতু (দক্ষিণ) থানার কার্যক্রম, বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্মিত ১২০টি গৃহ হস্তান্তর, পুলিশ হাসপাতালের আধুনিকায়ন, বাংলাদেশ পুলিশের ৬টি নারী ব্যারাক ও অনলাইন জিডি কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনের অংশ হিসাবে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ হাসপাতাল উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে চারটায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি শাহ আবিদ হোসেনের সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের এমপি মনিরা সুলতানা মনি, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শফিকুর রেজা বিশ্বাস, পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) মোহাঃ আহমার উজ্জামান, রেঞ্জ অফিসের পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) হারুন অর রশিদ, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ মোঃ শাহ আলম, জেলা

 

পরিষদের প্রশাসক অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ রেঞ্জ, ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ, সিআইডি, পিবিআই, এপিবিএন, ইনসার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার, টুরিস্ট পুুলিশের পুলিশ সুপারসহ, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলার বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জ ও ফাড়ির ইনচার্জগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে রেঞ্জ ডিআইজি অন্যান্য অতিথিদের নিয়ে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের নবনির্মিত ২০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক হাসপাতাল উদ্বোধন করেন।

উল্লেখ্য মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশ সারাদেশে ৫২০টি ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করে উপহার দেন। এর আগে ৪০০ পরিবারকে গৃহ প্রদান করা হয়। মঙ্গলবার আরো ১২০টি পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে গৃহ প্রদান করেন।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম