| |

সর্বশেষঃ

সৌরভ ছড়াচ্ছে ফুলময় শাহবাগে, দামে লেগেছে আগুন

আপডেটঃ ৩:২৩ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর শাহবাগের বাতাসে মৌ মৌ করছে দৃষ্টিনন্দন রঙিন ফুলের সৌরভ। আজ ১ ফাল্গুন, কাল বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। এই দুই বিশেষ দিনে নিজেদের রাঙাতে কতোই না আয়োজনের কথা ভাবেন যুগলরা। এ আয়োজনকে আরও রাঙিয়ে দিতে শাহবাগের ফুলের বাজারে নানান রংয়ের দৃষ্টিনন্দন ফুলের ঘটিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

সেসব ফুলেই সৌরভ ছড়িয়েছে শাহবাগে। ফুলময় শাহবাগে ফুল সংগ্রহে আসছেন ক্রেতারা। কিনছেন নানান ফুল, তবে চড়া দাম দেখে ক্রেতারা কিছুটা বিরক্তি নিয়ে বলছেন, ‘শাহবাগে ফুলের বাজারে লেগেছে আগুন’।

প্রিয়জনকে ভালোবাসার কথা জানাতে সুনীল তন্ন তন্ন করে খুঁজে এনেছিলেন ১০৮টা নীলপদ্ম কিন্তু বর্তমান সময়ে ভালোবাসা দিবসে নীলপদ্ম পাওয়া না গেলেও দৃষ্টিনন্দন নানা ফুলের সমাহার চোখে পড়ছে শাহবাগে। ফাল্গুনের শুভেচ্ছা জানাতে ফুল সংগ্রহে জমজমাট এখন শাহবাগের এই বাজার। এ ছাড়া আগামীকাল বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষেও চলছে ফুল বেচাকেনা। দিবস দুটিকে কেন্দ্র করে কয়েকগুন বেড়ে গেছে ফুলের চাহিদা।

ভালোবাসা ভালোলাগার সঙ্গে ‘ফুল’ নামক উপকরণটি অঙ্গাঙ্গিভাবেই জড়িত। বাঙালি সবসময়ই উৎসবপ্রেমী। তাই এই বিশেষ দিনকে সামনে রেখে বেড়ে যায় ফুলের চাহিদা আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ফুলের দাম কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছেন বিক্রেতারা।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম আরও তিনজন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে শাহবাগে ফুল কিনতে এসেছেন। তিনি বলেন, আজ ও কালকের জন্য ফুলের চাহিদা অনেক বেশি। এই সুযোগ বুঝে এখানকার দোকানিরা অতিরিক্ত দাম আদায় করছে। কিন্তু ক্রেতারাও বাধ্য হয়েই বেশি দামে ফুল কিনছেন। প্রচুর ফুলের আমদানি, নানান রঙের ফুলের সমাহার এখানে। কিন্তু ফুলের বাজারে আগুন লেগেছে। অতিরিক্ত বেশি দামে ফুল বিক্রি হচ্ছে। তবুও সকাল থেকে ক্রেতাদের চাপ এই ফুলের বাজারে।

শাহবাগের ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপ, অহনা ফুল কুঠির, পুষ্পকেন্দ্র, নীলকণ্ঠ, ফুলসজ্জা, শান্তা পুষ্প দোকানগুলো ঘুরে দেখা গেছে, নানা রকমের ফুলের সমাহার সেখানে।

পুষ্পকেন্দ্রের বিক্রয় কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান জানালেন, বছরে এ দুই দিন ফুলের চাহিদা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। এ সময় ফুলের চাহিদা থাকে প্রচুর। যে কারণে আমারা সবাই আগে থেকেই দুই বিশেষ দিনের প্রস্তুতি নিয়ে থাকি। সব মিলিয়ে কিছুটা বেশি দামে ফুল বিক্রি হয়। অন্যসময়ের তুলনায় আজ ফুল বিক্রি হচ্ছে বেশি, আগামীকালও এর চেয়েও বেশি চাহিদা থাকবে।

তিনি বলেন, অন্য সময় গোলাপ ৫-১০ টাকায় বিক্রি হলেও আজ সেটা ৩০-৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। রজনীগন্ধার স্টিক ২০ টাকা, প্রতিটি গাদা ফুলের মালা ৪০-৬০ টাকা, জারবেরা ফুল ৩০-৪০ টাকা, অর্কিড স্টিক ৬০ টাকা, গ্লাডিওলাস রং ভেদে ২০- ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা বছরের অন্য সময় প্রায় অর্ধেক দামে বিক্রি হয়। এ ছাড়া আগামীকালের জন্য আমরা আরও অনেক ফুল অর্ডার দিয়ে রেখেছি, পাশাপাশি স্টকেও আছে।

HostGator Web Hosting