| |

সর্বশেষঃ

বর্ন্যাঢ্য আয়োজনে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘কৃষিবিদ দিবস উদযাপিত

দেশের উন্নয়ন করতে হলে কৃষিতে উন্নয়ন করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী

আপডেটঃ ৮:৫২ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : কৃষি মন্ত্রী কৃষিবিদ ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এম.পি বলেন যারা কৃষি নিয়ে কাজ করে তারাই সভ্যতার নির্মাতা। প্রাচীণ মর্যাদাপূর্ণ পেশা কৃষি। দেশের উন্নয়ন করতে হলে কৃষিতে উন্নয়ন করতে হবে ।

তিনি আরও বলেন স্বাধীনতা উত্তর কৃষি গ্রাজুয়েটবৃন্দের নিরন্তর প্রচেষ্টার ফলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে সম্পূর্ণ স্বয়ংসম্পূর্ণ। বাংলাদেশ আজ সমগ্র বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। তিনি আরও বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষক বান্ধব ও কৃষি বান্ধব সরকার। আমরা কৃষকের প্রয়োজনের কথা চিন্তা করে সারের দাম কমিয়েছ্ ি,নিজস্ব উদ্যোগে পদœা সেতুর মত বড় প্রকল্প আজ ৭০ ভাগ সম্পন্ন করতে সক্ষম হয়েছি।

দিবসটি পালন উপলক্ষ্যে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার বাকৃবি হ্যালিপেড চত্বর থেকে এক বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। কৃষি মন্ত্রী কৃষিবিদ ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এম.পি এর নেতৃত্বে শোভাযাত্রায় নবীণ-প্রবীণ প্রায় সাত হাজারেরও অধীক কৃষিবিদ অংশ নেয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্বরে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান আকাঙ্খা ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত ‘সোনার বাংলা’ গড়ার লক্ষ্যে ১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্র“য়ারি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণির পদমর্যদা দিয়েছিলেন । জাতির জনকের দেয়া কৃষিবিদদের ঐতিহাসিক এ সম্মানকে স্মরণীয় করে রাখতেই প্রতি বছর ১৩ ফেব্রুয়ারি জাকজমকপূর্ণ ভাবে কৃষিবিদগণ দিবসটিকে ‘কৃষিবিদ দিবস’ হিসাবে পালন করে আসছে।
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে বুধবার বর্নাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্বরে পুস্পস্তবক অর্পণ, কৃতী অ্যালামনাই সংবর্ধনা ও বর্তমান সরকারের কৃষি উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ত্বরান্বিত ও সংহত করার ক্ষেত্রে করণীয় নির্ধারণ বিষয়ক ‘টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট অর্জনে আধুনিক কৃষি’ বিষয়ক সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ‘ কৃষিবিদ দিবস ২০১৯’ উদযাপিত হয়।

পরে বঙ্গব্ধু স্মৃতি চত্বরে বিশাল দৃষ্টিনন্দন প্যান্ডেলে কৃতী অ্যালামনাই সংবর্ধনা ও বর্তমান সরকারের কৃষি উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ত্বরান্বিত ও সংহত করার ক্ষেত্রে করণীয় নির্ধারণ বিষয়ক ‘টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট অর্জনে আধুনিক কৃষি’ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ আলী আকবর এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত কৃষি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী কৃষিবিদ ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এম.পি, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু এবং বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আবদুল মান্নান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধকার হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এমিরিটাস প্রফেসর কৃষিবিদ ড. এম এ সাত্তার মন্ডল । সেমিনারে মূল আলোচক ছিলেন পিকেএসএফ এর চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ ও বিডিবিএল এর সাবেক চেয়ারম্যান কৃষিবিদ মোঃ ইয়াছিন আলী।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.মোঃ জসিমউদ্দিন খান । বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই এসোসিয়েশন এর নির্বাহী সভাপতি কৃষিবিদ হামিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ বদিউজ্জামান বাদশা,প্রফেসর ড. একেএম জাকির হোসেন, ,বাকৃবি অফিসার পরিষদের সাবেক সভাপতি কৃষিবিদ আরীফ জাহাঙ্গীর, ছাত্রলীগ বাকৃবি শাখার সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সমগ্র কৃষিবিদদের পক্ষ থেকে কৃষি মন্ত্রী কৃষিবিদ ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এম.পি এবং বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আবদুল মান্নানকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় হ্যালিপেড চত্বরে পতাকা উত্তোলন, সাদা পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে বাকৃবির কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করা হয়।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) ও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত সাত হাজারেরও অধীক কৃষিবিদ অংশ নেন।

আরোও পড়ুন...

HostGator Web Hosting