| |

সর্বশেষঃ

ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনে জাপা প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহারের ঘোষনা

ইকরামুল হক টিটু বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় মেয়র হচ্ছেন

আপডেটঃ ১২:৩৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৭, ২০১৯

মোঃ রাসেল হোসেন, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক) নির্বাচনে মহানগর আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি, আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন। জাতীয় পার্টি মনোনীত একমাত্র মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ শহরের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন তার নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।


মঙ্গলবার বিকেলে ময়মনসিংহ শহরের এক কমিউনিটি সেন্টারে কর্মীসভায় মহানগর জাপা সভাপতি ও জাতীয় পার্টি মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকরামূল হক টিটু পক্ষে তার নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। লিখিত বক্তব্যে জাহাঙ্গীর আহমেদ বলেন, বিগত ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ময়মনসিংহ-৪ সদর আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেন।

একইসাথে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরাও অক্লান্ত পরিশ্রম করে বিজয়ী করেন বেগম রওশন এরশাদকে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এবং মহাজোটের নেতাকর্মীদের সহাবস্থান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থী ইকরামূল হক টিটুর বিজয় নিশ্চিত করতে জাপার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করা হয়। তবে সিটি এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডে জাপা’র কাউন্সিলরদের বিজয়ী করার জন্য আওয়মীলীগ নেতৃবৃন্দের প্রতি তিনি আহবান জানান। গত ২৫ মার্চ ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। আগামী ৫মে ভোট গ্রহণ হবে।

মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী টিটু পক্ষে তার নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়ে ইকরামূল হক টিটু’র হাত ধরে অভিনন্দন জানাতে দেখা যাচ্ছে।


এর আগে তিনি ঐ হোটেলে এক কর্মীসভা করেন। সভায় জ্াহাঙ্গীর আহমেদ ছাড়াও জাতীয় পার্টির নেতা সাংবাদিক মোশাররফ হোসেন, শরিফুল ইসলাম খোকন, সাবেক কাউন্সিলর ও জাপা নেতা আব্বাছ আলী তালুকদার, লাল মিয়া লাল্টু, হুসেন আলী, গিয়াস উদ্দিন, আফজাল হোসেন হারুন, হারুন অর রশিদ ওরফে হাজী হারুন, আঃ লতিফ। এর ফলে বর্তমানে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে ইকরামুল হক টিটু একক প্রার্থী রয়ে গেলেন।

মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকরামূল হক টিটু পক্ষে তার নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।


এর আগে মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবু মোঃ মুসা সরকার ও অপর বিদ্রোহী শহিদুল ইসলাম স্বপন মন্ডল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ডঃ বিশ্বজিৎ বাদুড়ীর মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাইকালে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে বাতিল হয়ে যায়। উল্লেখিত তিন স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বশীল প্রতিনিধি বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে আপীল করেন। তবে আপীল বিভাগ ঐ সব প্রার্থীদের আপীল খারিজ করে দেন।


অপরদিকে প্রার্থীতা বাতিলকৃত তিনি প্রার্থীর মধ্যে কেউ যদি উচ্চ আদালতে আর কোন আপীল না করেন এবং আপীল করলে উচ্চ আদালত তা খারিজ করে দিলে ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনে প্রথম মেয়র হিসাবে ইকরামূল হক টিটুকে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হিসাবে ঘোষণা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকরামূল হক টিটু পক্ষে তার নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়ে ইকরামূল হক টিটু’র সাথে কুলাকুলি করেন।


পরে হোটেল মোস্তাফিজে জাতীয় পার্র্টির কর্মীসভায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আমিনুল হক শামীম, মহানগরের সভাপতি এহতেশামূল আলম, সিটি কর্পোরেশনের একমাত্র মেয়র প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু, মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, এম এ কুদ্দুসসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত হন।

এক পর্যায়ে আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দের মধ্যে এক মিলনমেলা হয়ে যায়। এ সময় সিটি কর্পোরেশনের সকল উন্নয়নে জাতীয়পার্টিকে অংশীদার হিসাবে রাখা হবে বলেও নেতৃবৃন্দ ঘোষণা দেন।

HostGator Web Hosting