| |

সর্বশেষঃ

ওয়ান ম্যান আর্মি নয় বাংলাদেশ : মাশরাফি

আপডেটঃ ১:৫৬ অপরাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক : পাঁচ ম্যাচে বাংলাদেশের দুটি করে জয় ও হার এবং একটি ম্যাচ হয় পরিত্যক্ত। চার ম্যাচেই মাঠে নেমে সমহিমায় উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব আল হাসান। যদিও দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দলগত পারফরম্যান্সেই জিতেছে বাংলাদেশ। কিন্তু সাকিবের প্রভাব ছিল সবচেয়ে বেশি। যদিও অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা মনে করেন, শুধু একজনের ওপর নির্ভর করা দল নয় বাংলাদেশ।

চার ম্যাচে দুটি করে সেঞ্চুরি ও হাফসেঞ্চুরিতে ৩৮৪ রান করে এই বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত শীর্ষ ব্যাটসম্যান সাকিব। বল হাতে ৫ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ইকোনমি রেটও (৫.৮৪) বেশ চোখে পড়ার মতো। সাকিবের অসাধারণ ধারাবাহিকতায় উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশ অধিনায়ক। তবে সবারই কমবেশি অবদান ভূমিকা রেখেছে মনে করেন মাশরাফি।

সাকিব ছাড়াও মোস্তাফিজুর রহমান, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, তামিম ইকবাল ও সাইফউদ্দিনের অবদানের কথা তুলে ধরলেন মাশরাফি, ‘আমরা ওয়ান ম্যান আর্মি এটা বলবো না আমি। সাকিব রান করছে, এটা দলের জন্য অনেক বড় পাওয়া। অবশ্যই সে অসাধারণ। দারুণ ক্রিকেট খেলছে সে। অন্যদের দিকে তাকালে দেখবে মোস্তাফিজ একধাপ এগিয়ে পারফর্ম করছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার দুই উইকেট ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল। সাইফউদ্দিন শুরুতেই ক্রিস গেইলের উইকেট পেয়েছিল। তামিমও ভালো শুরু করেছিল। সৌম্য শেষ ম্যাচেও উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিল। লিটনও ছিল চমৎকার। মুশফিকের নাম কেন বলবো না? সেও দুই ম্যাচে ভালো ব্যাটিং করেছে। বল হাতে ধারাবাহিক মেহেদী হাসান মিরাজও। আমরা সবাই সাকিবের সাফল্যে গর্বিত। তার মতো করে অনেকেই ভালো কিছুর চেষ্টা করছে। এটা দেখে ভালো লাগছে।’

সাকিবের এই পারফরম্যান্সে অনেকে অবাক হলেও বিস্মিত নন মাশরাফি, ‘ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সাকিব দুর্দান্ত খেলছে। দলে অবদান রেখে আসছে নিয়মিতভাবে। সবসময়ই সে খুব আত্মবিশ্বাসী ছিল। আশা করি সে এই ধারা বজায় রাখবে।’

বাংলাদেশ বেশির ভাগ ম্যাচই জিতেছে দলগত পারফরম্যান্স দিয়ে। সবশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটিতে উদ্বোধনী জুটিতে ভালো শুরুর পর সাকিব ও লিটনের ব্যাটে জয় পেয়েছে। এমন জুটি আরও দেখতে চান মাশরাফি, ‘আমাদের তাকে (সাকিব) আরও বেশি সমর্থন দিতে হবে। আগের ম্যাচে লিটন যেমন পারফর্ম করেছে, এভাবে প্রতিদিন সাকিবকে কেউ সঙ্গ দিলে আমাদের জন্য দারুণ হবে।’

HostGator Web Hosting