সংবাদ শিরোনাম


স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : পুলিশের ফেসবুক ইনবক্সে ভিয়েতনাম থেকে এক ব্যক্তির দেওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ থেকে এক মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার (২৮ জুন) পুলিশ সদর দফতরের জনসংযোগ ও গণমাধ্যম শাখার এআইজি সোহেল রানা এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশের ‌মি‌ডিয়া অ্যান্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স উইং প‌রিচা‌লিত কেন্দ্রীয় ফেসবুক পেজে দেশ ও বিদেশ থেকে প্রতিদিন আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত অনেক তথ্য, অভিযোগ এবং সাহায্যের আবেদন আসে। সেগুলোর বিষ‌য়ে প্রয়োজনীয় ও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ ইউনিটগুলোকে নিয়মিত নি‌র্দেশনা দেওয়া থাকে। এরই অংশ হিসেবে সম্প্রতি ভিয়েতনাম হতে একজন ভুক্তভোগী মেসেঞ্জারে জানান, ময়মনসিংহের ফুলপুর এলাকার মানবপাচারকারী চক্রের দালাল কাজী সালেহ আহাম্মদ ওসমানীর (মাসা) মাধ্যমে উচ্চ বেতনের চাকরির আশ্বা‌সে সাড়ে তিন লাখ টাকা দিয়ে কিছুদিন আগে তিনি ভিয়েতনামে আসেন। দালাল তাকে আশ্বাস দিয়েছিল, কোম্পানি তাকে এয়ারপোর্ট থেকে নিয়ে যাবে। তার থাকা-খাওয়া এবং চিকিৎসা খরচ বহন করবে এবং মাসে ৬৫০ ডলারের সমপরিমাণ বেতন দেবে। কিন্তু তিনি ভিয়েতনাম পৌঁছানোর পর দেখতে পান এর কোনও কিছুই সত্য নয়। সেখানে যাওয়ার পর থেকেই তার ওপর শুরু হয় নানা রকম নির্যাতন। তিনি দেশে ফেরার জন্য ওসমানীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাকে জানায়, তার কাজ ছিল তাকে ভিয়েতনামে পৌঁছানো। এখন আর তার কোনও দায়িত্ব নেই। ভিকটিম ভিয়েতনামে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।’

অভিযোগ পেয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনা করে ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপারকে জানায়। জেলা পু‌লি‌শের প্রাথ‌মিক তদ‌ন্তে অভিযো‌গের সত্যতা মেলে। এরপর দালাল চক্রের সদস্য ওসমানীকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আপনার মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন

কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম