সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনার ভয়াবহ প্রকোপের মধ্যেই আগামী বুধবার সারাদেশে উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। সংক্রমণ ঠেকাতে গেল বছরের মতো এবারও ঈদগাহে জামাত হচ্ছে না, তার পরিবর্তে মসজিদেই ঈদের জামাত পড়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এবছর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পাঁচটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। গেল ঈদুল ফিতরেও পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

রবিবার (১৮ জুলাই) ইসলামিক ফাউেন্ডশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার (২১ জুলাই) সকাল ৭টায় অনুষ্ঠিত হবে ঈদের প্রথম জামাত। এরপর পর্যায়ক্রমে ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১০টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে অন্য ঈদ জামাতগুলো। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল ৭টায় প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মিজানুর রহমান। এতে মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদদের মুয়াজ্জিন মো. আতাউর রহমান।

সকাল ৮টায় দ্বিতীয় জামাতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী এবং মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররমের মুয়াজ্জিন হাফেজ ক্বারী কাজী মাসুদুর রহমান।

সকাল ৯টায় তৃতীয় জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক এবং এতে মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ ক্বারী হাবিবুর রহমান মেশকাত।

বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার চতুর্থ জামাআতটি অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টায়। এতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহিউদ্দীন কাসেম এবং মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন ক্বারী মো. ইসহাক।

পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতটি সকাল পৌনে ১১টায় অনুষ্ঠিত হবে। এতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান এবং মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের প্রধান খাদেম মো. শহীদুল্লাহ।

পাঁচটি জামাতের কোনওটিতে ইমাম অনুপস্থিত থাকলে বিকল্প হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম