সংবাদ শিরোনাম

 

ময়মনসিংহ শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত মেছুয়া বাজারের রাস্তা অবৈধ ভাবে দখল করে রমরমা ভিট ভাড়া বাণিজ্য করছে একটি চক্র। বাজারটি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের হলেও প্রভাবশালী একটি চক্র সিটি কর্পোরেশনের চোখ ফাঁকি দিয়ে দৈনিক ভিত্তিতে ভাড়া আদায় করছে। ভাড়াটিয়ারা বিভিন্ন দোকানের সামনে পুরো রাস্তাজুড়ে বিভিন্ন মালামালের প্রসরা সাজিয়ে ধুম কেনাবেচা করছে। রাস্তাজুড়ে তরিতরকারী, মসলা, ফলমুল, পান সিগারেটের দোকানসহ জিলাপীর দোকান গড়ে উঠায় ক্রেতা ও সাধারণ মানুষ চলাফেরা করতে পারছেনা। ফলে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে।

জানা যায়, মেছুয়া বাজারের কলা পট্টির সামনে থেকে স্বদেশী বাজার মোড় পর্যন্ত ও পালিকা শপিং সেন্টারের সামনে থেকে ছোট বাজার পর্যন্ত সমস্ত রাস্তজুড়ে দুই পাশে দোকানগুলোর সামনে দোকান বসেছে। রাস্তায় বসা এসব দোকান থেকে দৈনিকহারে ভাড়া আদায় করছেন দোকান ও ঘর মালিকগণ।

ময়মনসিংহের মেছুয়া বাজারকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে তরকারী, ফলমুল, শাকসবজি ট্রাক, ভ্যান, কভার্ডভ্যানসহ যানবাহনযোগে নিয়ে আসেন পাইকার, কৃষক ও ফরিয়ারা। ভোর থেকে সকাল দশটা পর্যন্ত কৃষক ও ফরিয়াদের পণ্য বিক্রয় করার জন্য খাঁচা ও বস্তা প্রতি দৈনিকহারে ঐ সব দোকান ও ঘর মালিকদের টাকা দিতে হয়। যে দোকান মালিক যত বেশি খাঁচা ও বস্তা রাখার সুযোগ করে দিবেন তাকে সে অনুযায়ী দোকান মালিকের ভাড়া আদায় হবে। পরবর্তীতে দশটার পর থেকে চলে আবার ভিট ভাড়া বাণিজ্য। একটি ভিটের জন্য প্রতিদিন ভাড়া দিতে হয় পাঁচশত টাকা থেকে ৬/৭শত টাকা পর্যন্ত। এছাড়া রাস্তায় পাশে বসা ফলের দোকানগুলোর মালিকানা হাত বদল হলে অগ্রীম স্বরূপ দিতে হয় পঞ্চাশ হাজার থেকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত। কোন কোন ক্ষেত্রে টাকার পরিমাণ আরও বেশি হয় বলে রাস্তায় বসা দোকানীরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে দাবি করেন। বাজারের অন্যান্য রাস্ত ও গলিপথ গুলোরও প্রায় একই অবস্থা। বাজারের রাস্তা ভাড়া দেওয়া দোকান মালিকগণ প্রভাবশালী হওয়ায় সাধারণ ব্যবসায়ী ও ভুক্তভোগীরা মুখ খুলতে সাহস পায় না। এতে সিটি কর্পোরেশনের ইজারাদার ব্যাক্তিরা বঞ্চিত হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেন, সারা দিন রোদ, বৃষ্টিতে ভিজে ব্যবসা করে যে টাকা লাভ হয় তার অর্ধেকই ভিটভাড়া হিসেবে দিয়ে দিতে হয়। তবুও মনে শান্তি পেতাম যদি টাকাটা সরকারের কোষাগারে জমা হতো। বাজারে অবৈধ ভিটভাড়া বাণিজ্যের ফলে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনও বঞ্চিত হচ্ছে তার রাজস্ব থেকে। ব্যবসায়ী ও কৃষকরা হচ্ছে আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ, ক্রেতারা চলাফেরা করতে হচ্ছে অসুবিধার সমুক্ষিন আর বাজার হারাচ্ছে তার সৌন্দর্য। সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু’র কাছে ভুক্তভোগীদের দাবী চির-ঐতিহ্যবাহী মেছুয়া বাজারের সৌন্দর্য ফিরিয়ে আনা হোক। সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাকিল আহমেদ জানান, মেয়র মহোদয় এ বিষয়ে অবগত হয়ে দ্রুততম সময়ে অভিযান পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, কতক লোকজন মেছুয়া বাজারের এ সব রাস্তাগুলো দখল করে অবৈধ সুবিধা নেয়াসহ জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করেছেন। এর আগেও বেশ কয়েকবার অভিযান পরিচালনা করে অবৈধদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। আবারো অল্প সময়ের মাঝে মেছুয়া বাজার এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম