সংবাদ শিরোনাম

 

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, এখন কৃষক তাদের কষ্টার্জিত ফসলের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে। কৃষকদের ফসলের ন্যায্য মূল্য দিতে গিয়ে তুলনামূলক চালের দাম একটু বেশি হয়। মানুষ এখন আর মোটা চালের ভাত খায় না। রিকশা চালক-দিনমজুর থেকে শুরু করে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষই এখন চিকন চাল খাচ্ছে। যে কারনে চিকন চালের দাম তুলনামূল একটু বেশি। আর এতেই শুরু হয় আলোচনা- সমালোচনা। শুরু হয় পেপার পত্রিকায় লেখালেখি, টিভি টকশোতে আলোচনা-সমালোচনা। চালের দাম বাড়ে কেজিতে মাত্র ১ থেকে ২টাকা। এতে কৃষক তাদের ফসলের ন্যায্য মূল্য পেয়ে থাকেন।

আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় নিজ নির্বাচনী এলাকা নওগাঁর পোরশা উপজেলা চত্তরে উপজেলা প্রশাসন কতৃক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার আরো বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। করোনাকালে বাংলাদেশে খাদ্যাভাবে একটি মানুষও মারা যায়নি। এখন দেশের কোন মানুষের অভাব-অনটন নেই। মানুষ এখন অনেক সুখে আছে। দেশের মানুষ এখন আর খারাপ কাপড় পরে না, খারাপ খাবার খায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হামিদ রেজার সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি খাদ্যমন্ত্রী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠী এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ত্রানের ঢেউটিন ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান, ২০২১-২২ অর্থ বছরে খরিপ-২ মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় গ্রীষ্মকালীন পেঁয়াজ ও মাসকলাই বীজ এবং সার বিতরণ, তৃতীয় প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৩) এর আওতায় বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ল্যাপটপ বিতরণ এবং মা ও শিশু সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ভাতা বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান কাজিবুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার সরকার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দোস্তদার হোসেন, থানার অফিসার ইনচার্জ সফিউল আজম খান প্রমুখ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম